কুড়িগ্রামে ১০৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

কুড়িগ্রামে ৯ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৩২ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪৩ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৩ জনসহ মোট ১০৮ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

এবার অধিকাংশ উপজেলায় আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। এছাড়াও বিএনপি ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী ছিল হাতে গোনা।

তবে ভাইস চেয়ারম্যান পদে একাধিক প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ায় নির্বাচন জমে উঠবে বলে ভোটাররা মনে করছেন। এছাড়াও নির্বাচনে দুটি উপজেলায় স্বামী-স্ত্রী চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন জমা দেওয়ায় মানুষের মধ্যে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার অফিস সূত্র জানায়, কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে। এর মধ্যে দলীয় প্রার্থী সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু। তিনি এবারো আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী।

মনোনয়ন না পেয়ে এই আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কুড়িগ্রাম পৌর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক সাইদুল হাসান দুলাল। এছাড়াও সদর আসনে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন জাকের পার্টির মশিউর রহমান।

এছাড়াও ভুরুঙ্গামারীতে চেয়ারম্যান পদে ২ জন এবং পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান ৪ জন ও মহিলা ৩ জন। নাগেশ্বরীতে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান ৪ জন ও মহিলা ৩ জন।

এখানে নাগেশ্বরী উপজেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম রসুল রাজা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন। ফুলবাড়ীতে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান ৫জন ও মহিলা ৪ জন। এখানে আওয়ামীলীগের প্রার্থী আতাউর রহমান শেখ। আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার। জাতীয় পার্টির প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা কমিটির সভাপতি মইনুল হক।

রাজারহাটে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান ৫জন ও মহিলা ৪ জন। এখানে আওয়ামীলীগের প্রার্থী আবু নুর মো: আক্তারুজ্জামান। বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন রংপুর মহানগর আওয়ামীলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ও চাকিরপশার ইউপি চেয়ারম্যান জাহিদ সরওয়ার্দ্দী বাপ্পী ও তার স্ত্রী রানু বেগম। উলিপুরে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারমান পদে ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২জন মনোনয়ন দাখিল করেছেন। চিলমারীতে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান ২জন ও মহিলা ৩ জন। এখানে আওয়ামীলীগের প্রার্থী শওকত আলী সরকার বীরবিক্রমের প্রতিদ্বন্দ্বি হিসেবে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জাতীয় পার্টি সমর্থক জোবাইদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী জেলিনা বেগম।

এছাড়াও সবচেয়ে বেশি মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে রাজিবপুর উপজেলায়। এখানে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১২ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন মনোনয়ন দাখিল করেছেন। রৌমারী উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও জেলা রিটার্ণিং কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান জানান, সবকটি উপজেলায় শান্তিপূর্ণভাবে মনোনয়নপত্র দাখিল করা হয়েছে। সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পরিচালনা করতে সব রকমের ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

#কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত