মালেশিয়ার ২৬৯ রোহিঙ্গা ফেরতের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলো বাংলাদেশ

সংগৃহীত ছবি।

মালয়েশিয়ায় প্রবেশের সময় ২৬৯ জন রোহিঙ্গা বোঝাই একটি নৌকা আটক করেছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। আটক রোহিঙ্গাদের সেদেশে জায়গা দিতে নারাজ মালয়েশিয়ার সরকার। তারা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে ফিরিয়ে নেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছে। তবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন গত রাতে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থাকে (বাসস) টেলিফোনে বলেন – বাংলাদেশ তাদের (রোহিঙ্গাদের) নেবে না। বাংলাদেশ আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিতে বাধ্য নয়, সে অবস্থাও নেই। তিনি আরো বলেন – কোনো রোহিঙ্গা মালয়েশিয়ার ভূখণ্ডে গিয়ে আটক হলে বাংলাদেশের কিছুই করার নেই। রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের নাগরিক নয়, বরং তারা কয়েক শতাব্দী ধরে মিয়ানমারে বসবাস করছে।

এর আগে ওই রোহিঙ্গাদের নিজ দেশ মিয়ানমারে না পাঠিয়ে বাংলাদেশে পাঠাতে চান মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব। মঙ্গলবার তিনি জানিয়েছেন, বাংলাদেশকে এসব রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বলা হবে।

ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেন – রোহিঙ্গাদের জানা উচিত, তারা এখানে (মালয়েশিয়া) আসলেও থাকতে পারবে না।’ তিনি জানান, যদি জানা যায় আটক হওয়া অভিবাসীরা বাংলাদেশের কক্সবাজারের আশ্রয় শিবির থেকে পালিয়ে থাকে তাহলে তাদের ফিরিয়ে নিতে ঢাকাকে অনুরোধ জানাবে মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এর আগে গত সোমবার মালয়েশিয়ার লঙ্কাউই দ্বীপের একটি নৌকা থেকে ২৬৯ জন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়। সেই সঙ্গে এক নারীর মৃতদেহও উদ্ধার করা হয়। ইসমাইল সাবরি বলেন, আটক করা এসব রোহিঙ্গাদের ভাসান চরে পাঠাতে বাংলাদেশকে অনুরোধ করবে মালয়েশিয়া। এছাড়া রোহিঙ্গাদের তৃতীয় কোনো দেশে আশ্রয় দিতে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআরকে বলা হবে বলেও জানান তিনি। সূত্র: বাসস।


আরো পড়ুন>>>


দিনের ব্রেকিং নিউজ সবার আগে পেতে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন:facebook-button-join-group

সরকারি এবং বেসরকারি চাকুরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পেতে

facebook-button-join-group

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত