খানসামায় উত্তরা ইপিজেড কর্মীদের মধ্যে করোনার আতঙ্ক!

চলমান বৈশ্বিক মহামারীতে নীলফামারী ইপিজেডের কর্মীরা করোনার ভাইরাস ছড়াতে পারে বলে আশংকা করেছেন দিনাজপুরের খানসামার বাসীন্দারা। তারা জানায়, প্রতিটি দিন বিভিন্ন চ্যানেলের সংবাদ শুনে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। নীলফামারী ও চিরিবন্দরের চাম্পাতলি ইপিজেডে নীলফামারী এবং দিনাজপুর জেলার পার্শ্ববর্তী উপজেলার শ্রমজীবি নারী ও পুরুষরা কাজ করে আসছে। এই কর্মীদের অধীকাংশই কোয়ারেন্টাইন কিংবা হোম কোয়ারেন্টাইন জানেনা।

কর্মীদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, এরা বাসায় ফিরে সাবান পানি দিয়ে হাত পরিষ্কার করলেও একই পরিবহনে আট-দশ জন যাতায়াত করে। পথে স্বভাব বশত: চোখ-মুখে কিংবা নাকে হাত দিয়ে স্পর্শ করে তা বলা মুশকিল। করোনা ভাইরাস আতঙ্কে যখন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হচ্ছে তখন এই ইপিজেড বন্ধে কোন সিদ্ধান্ত এখনো না নেয়ায় খানসামাবাসীদের মনে আশংকার সৃষ্টি করেছে।

এ ব্যাপারে খানসামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিডি৩৬০ নিউজকে বলেন – এ বিষয়ে ইপিজেডের জিএম মহোদয়ের সাথে কথা বলেছি। সরকারি সিদ্ধান্ত ছাড়া তিনিও কারখানা বন্ধ করতে পারবে না মর্মে জানিয়েছেন। তবে খুব শীঘ্রই সিদ্ধান্ত আসবে বলে জানান।

#ভূপেন্দ্র নাথ রায়, খানসামা প্রতিনিধি।



আরো পড়ুন:

দিনের ব্রেকিং নিউজ সবার আগে পেতে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন:facebook-button-join-group

সরকারি এবং বেসরকারি চাকুরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি পেতে

facebook-button-join-group

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত