আবারো পুড়ে ছাই হয়ে গেল চলন্তিকা বস্তি!

দ্বিতীয়বারের মত আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল রাজধানীর রূপনগরের চলন্তিকা বস্তি! সেকশন-৬ ব্লক-সি এলাকার বস্তিটিতে এবার ৩৭৭টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আজ ভোর ৪টা ৯ মিনিটে এ অগ্নাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে। ফায়ার সার্ভিস ১৫টি ইউনিট ভোর ৫টা ৪৫ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এই অগ্নিকাণ্ডে ৩ অগ্নিদগ্ধ হয়েছে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে। ফায়ার সার্ভিসের ১৫টি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজে নিয়জিত ছিল বলে নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের কন্ট্রোল রুমের অপারেটর জিয়াউর রহমান।

তবে কীভাবে এই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে সেটি এখনো জানা যায়নি বলে জানিয়েছেন জিয়াউর রহমান। একইসাথে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও জানা যায়নি। তদন্ত সাপেক্ষে এসব তথ্য জানানো হবে বলেও জানান জিয়াউর রহমান। আগুনে দগ্ধরা হলেন বস্তির বাসিন্দা পারভিন (৩৫) ও শহিদুল ইসলাম (২০)।

অগ্নিদগ্ধ দুজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে পারভিনের শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন ঢামেক হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

Cholontika Slum Fire

এদিকে, অগ্নিকাণ্ডের কারণ অনুসন্ধান ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণে ফায়ার সার্ভিস ঢাকার উপপরিচালক দেবাশীষ বর্ধনকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে ঢামেক হাসপাতালের ক্যাম্প পুলিশ ইনচার্জ মো. বাচ্চু মিয়া বলেন – গতকাল সকাল ৭টার দিকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা দগ্ধদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। দগ্ধ নারীর শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৬ আগস্ট সন্ধ্যা ৭টা ২২ মিনিটে চলন্তিকা বস্তিতে আগুনের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ২৪টি ইউনিট কাজ করে রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই সময় আগুনে পুড়ে বস্তির অনেক পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত