চীনের উহানে আটকা পড়েছে ৫০০ শিক্ষার্থী

করোনা ভাইরাসের কবলে পড়েছে চীন! ১৩টি অঞ্চলে ইতিমধ্যেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে চীন সরকার। নতুন ভাইরাসের কবলে পড়ে সবথেকে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ২৬ জন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে, ভাইরাসে আক্রান্ত সবথেকে ক্ষতিগ্রস্থ অঞ্চলে উহানে আটকা পড়েছে ৫০০ বাংলাদেশি শিক্ষার্থী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চীন সরকার ঐ অঞ্চলের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার ফলে অঞ্চলের বাসিন্দাদের সাথে তারাও আটকা পড়েছে।

এই শিক্ষার্থীদের একজন এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন। রাকিবিল তূর্যা নামের ঐ শিক্ষার্থী পোস্টে লিখেছেন – সম্প্রতি চায়নাতে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শহর উহানে আমি বাস করছি।

তিনি আরো লিখেছেন – এখানে আমরা প্রায় ৫০০ জনেরও অধিক বাংলাদেশি উহানের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাচেলর, মাস্টার্স ও পিএইচডি প্রোগ্রামে অধ্যায়নরত। উহান থেকে বহির্গামী সব বাস-ট্রেন এবং বিমান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত অন্তত ২৫ জন মারা গেছে এবং ৬০০-এরও বেশি মানুষ এতে আক্রান্ত হয়েছে। আমরা চাইলেও এখন নিজ দেশে ফিরে যেতে পারছি না।

মেকানিক্যাল অ্যান্ড অটোমেশন ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে হুবেই ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজিতে পড়াশোনা করা রাকিবিল আরো লিখেন – বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে আমাদের খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে এমন নিউজ বাংলাদেশের মিডিয়াতে প্রচার করা হলেও এ খবর ভিত্তিহীন। আমাদের এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার কোনো খোঁজ নেওয়া হয়নি। আমরা সবাই এক কঠিন মুহূর্ত পার করছি। আল্লাহ তায়ালা যেন আমাদের সবাইকে এ বিপদ থেকে রক্ষা করেন।

চীনে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ২৮৭ জনে দাঁড়িয়েছে। পরিস্থিতি সামলাতে গণপরিবহন বন্ধ করায় উহান ও পার্শ্ববর্তী হুয়াংগ্যাং শহরের অন্তত ২ কোটি বাসিন্দা কার্যত আটকা পড়েছে। উহানের সঙ্গে বিমান ও রেল যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, চীনে আটকে পড়া শিক্ষার্থীরা হটলাইন নম্বরের (https://www.bdembassybeijing.org/contact-us/) মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারবেন।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত