শেষ হলো প্রথম পর্ব, মুসলিম জাতির শান্তি-ঐক্য কামনা

তিনদিনের কার্যক্রমের পর আজ আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। লাখো মুসল্লির আমিন, আমিন ধ্বনিতে মুখোরিত হয়ে উঠে পুরো তুরাগ পাড়। মানুষের কান্নার আওয়াজে ইজতেমার ময়দানে অভূতপূর্ব এক পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছিল।

মোনাজাতে সব মুসলমানদের গোনাহ মাফ, দুনিয়া ও আখেরাতের কল্যাণ, বিশ্ব শান্তি, বিশ্ববাসীর সুখ-সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। রবিবার বেলা ১১টা ১০মিনিটে মোনাজাত শুরু করেন আলমি শুরার সদস্য, কাকরাইলের মুরব্বি হাফেজ মাওলানা মো. জোবায়ের।

রবিবার ফজর নামাজের পর ইজতেমা ময়দানে মুসল্লিদের উদ্দেশে হেদায়েতি বয়ান পেশ করেন পাকিস্তানের মাওলানা জিয়াউল হক। আখেরি মোনাজাতের আগে বিশেষ বয়ান করেন ভারতের মাওলানা ইবরাহিম দেওলা। এবারের ইজতেমায় রেকর্ড সংখ্যক মুসল্লির আগমন ঘটে।

মূল ময়দানে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। তাই মানুষ রাস্তা থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্থানে বসে মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন। সকাল ১১টার পর শুরু হয়েছে আখেরি মোনাজাত। মোনাজাত পরিচালনা করছেন বাংলাদেশের তাবলিগের প্রধান মারকাজ কাকরাইলের মুরব্বি হাফেজ মাওলানা জোবায়ের আহমদ।

আখেরি মোনাজাতকে কেন্দ্র করে তুরাগতীরে মুসল্লিদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন রাজধানী ও আশেপাশের জেলার মানুষ। আখেরি মোনাজাতের আগে বিশেষ বয়ান করেন ভারতের মাওলানা ইবরাহিম দেওলা।

আগামী ১৭ জানুয়ারি সা’দ অনুসারীদের ইজতেমা শুরু হবে, শেষ হবে ১৯ জানুয়ারি। প্রথম পর্বের আয়োজক কমিটির লোকজন মোনাজাতের পরপর মাঠ বুঝিয়ে দিবেন প্রশাসনের হাতে এবং ময়দান খালি করে দিবেন। পরে সা’দ অনুসারীরা ময়দানে প্রবেশ শুরু করবেন।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত