আলটিমেটাম শেষ। কিন্তু ইমরান যা বললেন

গত শুক্রবার পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন ইমরান সরকারকে পদত্যাগ করার জন্য ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়েছিল জমিয়ত উলেমা-ই-ইসলাম ফজলের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান। তা না হলে আরো লম্বা ধর্মঘট করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ফজলুর।

সেই আল্টিমেটামের মেয়াদ শেষ হলেও পদত্যাগ করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এমনকি এই ধর্মঘটের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ক্ষমতাসীন ইমরান।পাকিস্তানি গণমাধ্যম দ্য ডন এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে। এদিকে পাকিস্তান সেনাবাহিনী ক্ষমতাসীন দলের পক্ষে তাদের অবস্থান জানিয়ে দিয়েছে।

শনিবার ক্ষমতাসীন দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) কোর কমিটির বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিরক্ষামন্ত্রী পারভেজ খাট্টাক বলেন – ২০১৮ সালের নির্বাচনে কারচুপি নিয়ে গঠিত পার্লামেন্টারি কমিটি পরিবর্তনে সরকার রাজি আছে। তবে তিনি জানিয়েছেন, উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে জমিয়ত উলেমা-ই-ইসলাম ফজলের প্রধান মাওলানা ফজলুর রেহমানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করবে সরকার।

এর আগে ফজলুর রেহমান ইমরান খানকে পদত্যাগে দুই দিনের আলটিমেটাম দিয়ে বলেন – জনগণের উচিত প্রধানমন্ত্রীকে আটক করে পদত্যাগে বাধ্য করা। খাট্টাক বলেন, ফজলুর রেহমান এই ধরনের বক্তব্য দিয়ে রাষ্ট্রদ্রোহের অপরাধ করেছেন। প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, সরকার বিরোধীদের আজাদি মার্চে ভীত নয়; কিন্তু তাদের বক্তব্য জাতীয় প্রতিষ্ঠানকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। ফজলুর রেহমান বলেছেন, তারা এখনই রেড জোনে প্রবেশ করতে চান না। তবে প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ না করা পর্যন্ত ঘরে ফিরবেন না। আর ইমরান খান বলেছেন, তিনি কোনো অন্যায় দাবির কাছে মাথানত করবেন না।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত