খালেদার চিকিৎসা নিয়ে যা বললেন শেখ হাসিনা

আজারবাইজানের স্থানীয় হিলটন হোটেলে আজারবাইজানের প্রবাসী বাংলাদশিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি প্রবাসীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। সাক্ষাৎকারে তিনি বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার বিষয় নিয়েও কথা বলেন।

খালেদা জিয়াকে নিয়ে এক প্রবাসীর প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন – বিএনপির কর্মীরা মুক্তির দাবিকে আন্দোলনের ইস্যু বানাতেই সে (খালেদা জিয়া) অসুস্থ বলছে। খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমিউ’র (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়) একটি কেবিনে রেখে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন – বিএনপি তার মুক্তির আন্দোলন বা জনমত গঠন করতে পারেনি। তাদের ব্যর্থতায় আসলে আমাদের কিছু করার নেই। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে পুণরায় হুঁশিয়ারি দেন। তাদের বিরুদ্ধে কঠিন আইন চালিয়ে যাবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন – অপরাধী সে যেই হোক এবং যে দলেরই হোক না কেন, আপনারা দেখেছেন আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছি। অপরাধীরা অপরাধীই, আমরা অপরাধীদের অপরাধীর দৃষ্টিতেই দেখবো এবং আমরা সেটাই দেখার চেষ্টা করছি। অন্যকে শিক্ষা দেওয়াটা নিজ ঘর থেকেই শুরু করা উচিত।

বিএনপি-জামায়াত সরকারের ব্যাপক দুর্নীতির প্রসঙ্গ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন – তাদের পাঁচ বছরের দু:শাসনে দেশে দুর্নীতির কোন সীমা ছিল না। প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সনের কথা উল্লেখ করে আরো বলেন – বিএনপি নেত্রী অন্যান্য বন্দিদের চেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা লাভ করছেন। বেগম জিয়ার ইচ্ছা অনুযায়ী একজন গৃহপরিচারিকা কারাগারে তার সঙ্গে রাখা হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন – তার মানে বেগম জিয়াকে কারাগারে সেই সেবা করছে। কারাগারের ইতিহাসে বা কোন দেশে এমন নজির নেই কোন নিরপরাধী গৃহপরিচারিকা একজন বন্দির সঙ্গে কারাগারে অবস্থান করে। কিন্তু খালেদা জিয়া সেই সুবিধা ভোগ করছেন।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত