বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক বানাচ্ছে প্যালেস্টাইন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অষ্টাদশ ন্যাম শীর্ষ সম্মেলন শেষ করে দেশের পথে আছেন। কিন্তু দেশে আসার সময় দেশের মানুষের একটি খুশির খবর নিয়ে আসছেন। বাঙালির স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে ফিলিস্তিনে একটি সড়ক তৈরি করা হচ্ছে।

আজারবাইজানে ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে শনিবার বাকু কংগ্রেস সেন্টারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে এই তথ্য জানান ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ মালকি। বঙ্গবন্ধুর নামে পশ্চিম তীরের হেবরন শহরের একটি সড়কের নামকরণ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক জানান, ওই সড়ক উদ্বোধন করতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ফিলিস্তিনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী। স্বাধীন ভূখন্ডের জন্য অর্ধশতকের বেশি সময় ধরে সংগ্রামরত ফিলিস্তিনিদের অধিকারের বিষয়ে বঙ্গবন্ধু সব সময়ই সোচ্চার ছিলেন। শেখ হাসিনাও জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মঞ্চে ফিলিস্তিনিদের স্বাধীনতার পক্ষে কথা বলেন। বঙ্গবন্ধুর ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ একজন ফিলিস্তিনিও অনুবাদ করেছেন।

এদিকে, সম্মেলনের মাঝে প্রথমবারের মত বাংলাদেশ ও আজারবাইজানের মধ্যে সাংস্কৃতিক সম্পর্ক আরো জোরদার করার জন্য একটি সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়েছে। শনিবার বাকুর প্রেসিডেনসিয়াল প্যালেসে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভের উপস্থিতিতে এই চুক্তি সই হয়।

বাংলাদেশের পক্ষে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং আজারবাইজানের পক্ষে দেশটির সংস্কৃতি ও পর্যটন বিষয়ক মন্ত্রী আবুলফাস গারায়েব এ চুক্তিতে সই করেন। এর আগে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। এ বৈঠকটিও বাংলাদেশ ও আজারবাইজানের মধ্যে শীর্ষ পর্যায়ের প্রথম বৈঠক।

অপরদিকে, দেশে আসার আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য জোরদারের অংশ হিসেবে প্রিফারেন্সিয়াল ট্রেড এগ্রিমেন্ট (পিটিএ) দ্রুত সই করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি বলেন – পিটিএ দ্রুত বাস্তবায়ন করা গেলে দুই দেশ ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে ব্যাপক সুবিধা লাভ করবে। ১৮তম ন্যাম সম্মেলনের পাশাপাশি শনিবার নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শার্মা ওলির সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ সময় উপস্থিত ছিলেন। শহীদুল হক বলেন, দুই প্রধানমন্ত্রী যোগাযোগ, বন্দর সুবিধা এবং ব্যবসা-বাণিজ্য জোরদার করার বিষয়ে আলোচনা করেন।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত