ব্যালন ‘ডি’অরের তালিকায় আছেন যে ফুটবলাররা (সম্পুর্ণ তালিকা)

ফুটবলের সবথেকে উত্তেজনাকর পুরস্কারের মধ্যে ব্যাল ‘ডি’অর। প্রতিবছরের মত এবারও খেলোয়াড়দের মধ্য সেরা খেলোয়াড়ের হাতে উঠবে এই সম্মাননাটি। ইতিমধ্যেই ব্যালন ‘ডি’অরের জন্য ৩০ জনের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে ব্যালন ‘ডি’অর কর্তৃপক্ষ।

এই তালিকায় বর্ষসেরা ফুটবলারের দৌড়ে আছেন লিওনেল মেসি, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও ভার্জিল ফন ডাইক। তবে এই দৌড় প্রতিযোগিতায় ট্র্যাকে আসতে পারেননি ব্রাজিল তারকা নেইমার জুনিয়র ও ক্রোয়েশিয়ার লুকা মদ্রিচ। আগামী ২ ডিসেম্বর প্যারিসে ধুমধামভাবে এক আয়োজনের মাধ্যমে এক বিজয়ীর হাতে তুলে দেওয়া হবে ব্যালন ডি’অর পুরস্কার। তবে এর আগে ৩০ জনের তালিকাকে তিনজনের তালিকা আনবে ফ্রান্স ফুটবল।

ব্যালন ডি’অরের ৩০ জনের সংক্ষিপ্ত তালিকা:

এই তালিকায় সবথেকে বেশি স্থান পেয়েছে  ফ্রান্সের ফুটবলাররা। তাদের ৪ ফুটবলার ৩০ জনের তালিকায় স্থান পেয়েছে। অন্যদিকে ব্রাজিলের হয়ে স্থান পেয়েছে ৩ জন ফুটবলার। এদিকে, পর্তুগাল ও আর্জেন্টিনার হয়ে তালিকায় স্থান পেয়েছেন দু’জন করে খেলোয়াড়।

সাদিও মানে (লিভারপুল/সেনেগাল), সার্জিও আগুয়েরো (ম্যানচেস্টার সিটি/আর্জেন্টিনা), ফ্রেংকি ডি ইয়ং (বার্সেলোনা/নেদারল্যান্ডস), হুগো লরিস (টটেনহ্যাম হটস্পার/ফ্রান্স), দুসান তাদিচ (আয়াক্স/সার্বিয়া), কিলিয়ান এমবাপ্পে (পিএসজি/ফ্রান্স), ট্রেন্ট অ্যালেকজান্ডার-আর্নল্ড (লিভারপুল/ইংল্যান্ড), ডনি ফন দে বিক (আয়াক্স/নেদারল্যান্ডস), পিয়েরে-এমেরিক আউবামেয়াং (আর্সেনাল/গ্যাবন)।

মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন (বার্সেলোনা/জার্মানি), ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (জুভেন্টাস/পর্তুগাল), আলিসন (লিভারপুল/ব্রাজিল), মাটাইস ডি লিট (জুভেন্টাস/নেদারল্যান্ডস), করিম বেনজেমা (রিয়াল মাদ্রিদ/ফ্রান্স), জর্জিনিয়ো ভাইনালডাম (লিভারপুল/নেদারল্যান্ডস), ভার্জিল ফন ডাইক (লিভারপুল/নেদারল্যান্ডস), বের্নার্দো সিলভা (ম্যানচেস্টার সিটি/পর্তুগাল), সন হিউং-মিন (টটেনহ্যাম হটস্পার/দক্ষিণ কোরিয়া)।

রবার্ট লেভানডভস্কি (বায়ার্ন মিউনিখ/পোল্যান্ড), রবের্তো ফিরমিনো (লিভারপুল/ব্রাজিল), রিয়াদ মাহরেজ (ম্যানচেস্টার সিটি/আলজেরিয়া), লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা/আর্জেন্টিনা) কেভিন দে ব্রুইনা (ম্যানচেস্টার সিটি/বেলজিয়াম), কালিদু কলিবালি (নাপোলি/সেনেগাল), অঁতোয়ান গ্রিজম্যান (বার্সেলোনা/ফ্রান্স), মোহামেদ সালাহ (লিভারপুল/মিশর), এডেন হ্যাজার্ড (রিয়াল মাদ্রিদ/বেলজিয়াম),মার্কিনিয়োস (পিএসজি/ব্রাজিল), রাহিম স্টার্লিং (ম্যানচেস্টার সিটি/ইংল্যান্ড) ও জোয়াও ফেলিক্স (অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ/পর্তুগালে)।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত