আবরার হত্যার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছে সারাদেশের শিক্ষার্থীরা

বুয়েটের আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বেরোবি ও ইবি ছাত্ররা বিক্ষোভ মিছিল করে।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যার দাবিতে ফেটে পড়েছে বুয়েটের শিক্ষার্থীরা। তাদের সাথে এবার রাস্তায় বিক্ষোভ শুরু করেছে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, আবরার হত্যায় জড়িতদের ফাঁসি চাই।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ক্যাম্পাস প্রতিনিধি ইভান চৌধুরী বিডি৩৬০ নিউজকে পাঠানো প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

BRU Students Protest for Abrar

ছবি: আবরার ফাহাদ হত্যাকারীদের ফাঁসীর দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বেরোবি শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (০৮ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে নগরীর মর্ডাণ মোড় মহাসড়কে অবস্থান করে শিক্ষার্থীরা। এসময় আবরারের খুনিদের ফাঁসির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। পরে বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন পার্কের মোড়ে এসে মানববন্ধনে রুপ নেয়।

প্রতিবেদনে আরো জানা যায়, এসময় মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা আবরার ফাহাদ হত্যার সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ নেতাদের ফাঁসির দাবি করে বলেন – আবরার হত্যার পেছনে ছাত্রলীগের অতিমাত্রায় ভারতপ্রেম প্রেরণা জুগিয়েছে। দেশপ্রেমিক আবরারের ভারতবিদ্বেষী স্ট্যাটাস দেয়ার কারণে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

তারা আরো বলেন – আমরা চাইনা কোনো কুলাঙ্গারের হাতে আর কোনো বাবা-মায়ের বুক খালি হোক। প্রতিটি ক্যাম্পাসে এই মানুষরুপী হায়েনাদের চিহ্নিত করে বহিষ্কারেরও দাবি জানান তারা।

BRU Students Protest for Abrar

ছবি: আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করে বেরোবি শিক্ষার্থীরা।

এদিকে, আবরার ফাহাদের হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ, আন্দোলন শুরু হয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বস্তরের শিক্ষার্থীরা। ইবি’র ক্যাম্পাস প্রতিনিধি আমিনুল ইসলামের পাঠানো প্রতিবেদনে জানা যায়, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়রের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার রহমানকে হত্যার প্রতিবাদে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

গতকাল ৭ অক্টোবর রোজ সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে ক্যাম্পাসের জিয়া মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বিভিন্ন আবাসিক হল ঘুরে প্রধান ফটক সংলগ্ন মহাসড়কে অবস্থান করে। এসময় তারা প্রায় ৩০ মিনিট কুষ্টিয়া- খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে রাস্তার দুপাশে কয়েকশত যানবাহন আটকা পড়ে।

এসময় বিক্ষোভকারীরা আবরার হলো আমার ভাই, আবরার হত্যার বিচার চাই; শিক্ষা সন্ত্রাস একসাথে চলেনা; আমার ভাই কবরে, খুনী কেন বাহিরে; সন্ত্রাসীদের কালো হাত ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও স্লোগান দিতে থাকেন।

প্রতিবেদন থেকে আরো জানা যায়, এসময় ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি জাহাঙ্গীর আরিফ এসে আন্দোলনকারীদের রাস্তা ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ জানান। একপর্যায়ে আন্দোলনকারীরা ২৪ ঘন্টা আল্টিমেটাম দিয়ে আন্দোলন স্থগিত করেন।

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা বলেন – ২৪ ঘন্টার মধ্যে যদি আবরার হত্যার খুনীদের গ্রেফতার করা না হয় তাহলে আগামীকাল দুপুর ২:৩০ থেকে বাংলাদেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে সাথে নিয়ে একযোগে আন্দোলন করে দেশকে অচল করে দেওয়া হবে।

ইবি থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি জাহাঙ্গীর আরিফ বলেন – আমরাও এই হত্যার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। ইতোমধ্যে কয়েকজন গ্রেফতার হয়েছে। যারা এখনো পলাতক রয়েছে তাদেরকে গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়ার জের ধরে আবরার ফাহাদকে রোববার (৬ অক্টোবর) রাতে ডেকে নিয়ে যায় বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। এরপর রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দুইতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এই ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে রাজধানীর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত ৯ জন ছাত্রলীগ নেতাকে আটক করে পুলিশ।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত