অবশেষে কাঙ্খিত গোলের দেখা পেলেন মেসি!

চলতি স্প্যানিশ লা লিগার আসরে অনেকটাই চুপসে আছেন মেসি। কিন্তু সেই চুপসানো থেকে গর্জে উঠার ইঙ্গিত দিলেন গতকাল রাতে। সেভিয়ার বিপক্ষে গোল করে তার অবস্থা জানিয়ে দিলেন সবাইকে। এদিন সেভিয়াকে ৪-০ গোলে  বিদ্ধস্ত করে কাতালানরা। অবশ্য মেসি ছাড়াও গোল করেছেন লুইস সুয়ারেজ, উসমান ডেম্বেলে এবং আর্তুরো ভিদাল। এই জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলের দুই নম্বর স্থানটি দখল করেছে মেসি বাহিনী।

রোববার রাতে শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলেছিল বার্সা। যদিও সাফল্য আসে ২৭ মিনিটের মাথায়। লুইস সুয়ারেজ দুর্দান্ত এক গোল করে দলকে এগিয়ে দেন ১-০ তে। নেলসন সেমেদোর দারুণ ক্রসে বাঁ পায়ের বাইসাইকেল কিকে জাল খুঁজে নেন তিনি।

এরপর ৩২ মিনিটে সেভিয়াদের জ্বালে আঘাত হানেন মৌসুমে প্রথমবারের মতো শুরুর একাদশে জায়গা পাওয়া ভিদাল। আর্থারের চমৎকার ক্রসে দারুণ স্লাইডে ঠিকানায় বল পাঠান তিনি। ২ মিনিট পর স্কোরলাইন ৩-০ করেন ডেম্বেলে। আর্থারের বল পেয়ে গতি আর পায়ের কারিকুরিতে ডিফেন্ডারদের ফাঁকি দিয়ে বাঁ পায়ের কোনাকুনি শটে নিশানাভেদ করেন ফরাসি ফরোয়ার্ড। কার্যত এখানেই জয় নিশ্চিত হয়ে যায় স্বাগতিকদের।

তবে বিরতির পর হঠাৎ করেই সেভিয়ার খেলার ধরণ পাল্টে গেল। তারাও আক্রমণ করা শুরু করলো কাতালান শিবিরে। অনেকগুলো গোল শর্ট নিয়েছিল তারা। কিন্তু কপাল তাদের সঙ্গে ছিল না। তবে খানিক বাদেই অতিথিদের আক্রমণের ঝাপটা সামলে ওঠেন আর্নেস্তো ভালভার্দের শিষ্যরা।

এবার জালে বল জড়ান চোট থেকে ফিরে মাঠে দুর্দান্ত খেলতে থাকা আর্জেন্টাইন সুপারস্টার মেসি। ৭৮ মিনিটে দারুণ এক ফ্রি কিকে গোলখরা কাটান তিনি। ক্যারিয়ারে কখনও এতটা সময় গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয়নি ছোট ম্যাজিসিয়ানকে। ৮৭ মিনিটে জোড়া ধাক্কা খায় বার্সেলোনা। হাভিয়ের এর্নানদেসকে ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন অভিষিক্ত রক্ষণসেনা রোনাল্দ আরায়ো। দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ডেম্বেলে। বড় জয়ের সঙ্গে এ হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের।

এ জয়ে ৮ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বার্সা। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। ৮ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত