প্রধানমন্ত্রী কমিটি ভাঙার নির্দেশ দেননি – কাদের

সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক প্রশ্নের জবাবে জানান, ছাত্রলীগের কমিটি ভাঙার ব্যাপারে আলোচনা হলেও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এছাড়া ছাত্রলীগের ভালো কাজে সন্তোষ প্রকাশের পাশাপাশি অপছন্দের কাজে সতর্ক করার কথাও বলেন তিনি।

তিনি বলেন – দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ছাত্রলীগের ভালো কাজে সন্তোষ প্রকাশ করি, যেগুলো মানুষ পছন্দ করে না সেগুলোর ব্যাপারে তাদের সতর্ক করি। গেলো বছরের ৩১ জুলাই ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব নেন শোভন-রাব্বানী। চলতি বছরের ১৩ মে ঘোষণা করা হয় পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

এর আগে,  বর্তমানে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন গোলাম রাব্বানী। তাদের নানা কর্মকাণ্ডে বিরক্তি প্রকাশ করে কমিটি ভেঙে দেয়ার নির্দেশ দেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের এক বৈঠকে শেখ হাসিনা এই নির্দেশ দিয়েছেন বলে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

আওয়ামী লীগের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে গণমাধ্যমকে জানান, ক্ষোভ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমন নির্দেশ দিয়েছেন। তবে বিষয়টি বাস্তবে কার্যকর না-ও হতে পারে। প্রধানমন্ত্রী তাদের কর্মকাণ্ডে যে বেশ ক্ষুব্ধ তা বৈঠকে স্পষ্টতই প্রমাণিত বলে জানান তিনি।

ছাত্র লীগের দুই শীর্ষ নেতার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ এসেছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তা হলো বিতর্কিতদের কেন্দ্রীয় কমিটিতে জায়গা দেয়া, দুপুরের আগে ঘুম থেকে না ওঠা, অনৈতিক আর্থিক লেনদেন ইত্যাদি।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত