চট্টগ্রামে নোয়াখালীর যুবকের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার!

আজ শনিবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কোলাগাঁও ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের চাপড়া শীলপাড়া এলাকা থেকে পুলিশ রক্তাক্ত এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে পটিয়া থানা পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নিহত যুবক স্থানীয় কোলাগাঁও যমুনা প্রিন্টিং লিমিটেড নামক একটি পোশাক কারখানায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। কালারপুল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম যুবকের পরিচয় নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন – নিহত যুবক কোলাঁগাও যমুনা প্রিন্টিং লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানার শ্রমিক। কামরুল হাসান পলাশের (২৬) বাড়ি নোয়াখালী সদরের নলপুর গ্রামে। তার পিতার নাম জহিরুল হক।

পুলিশ এবং প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রাস্তার পাশে যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে প্রত্যক্ষদর্শীরা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট করে। পুলিশ ও স্থানীয়রা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন হত্যা করে লাশটি রাস্তার পাশে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

যুবকের কর্মস্থল পোশাক কারখানা সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় একটি মেয়ের সঙ্গে পলাশের সম্পর্ক ছিল। সেই কারণে তিনি খুন হতে পারেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দীন বলেন – রাস্তার পাশে যুবকের মরদেহ পড়ে থাকার বিষয়টি স্থানীয়রা আমাকে জানিয়েছিল। এরপর পটিয়া কালারপুল পুলিশ ফাঁড়ি ও এবং আমি (ওসি) নিজেও ঘটনাস্থলে ছুটে যাই।

ওই যুবকের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরনে টি-শার্ট ও লুঙ্গি ছিল বলে ওসি জানান।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত