রতনপুরে বানরের অত্যাচারে মেয়েদের বিয়ে হচ্ছে না!

মেয়ে দেখতে সুন্দর, একটুআধটু পড়ালেখাও জানে, ঘরের কাজও পারে! বিয়ের জন্য পুরো তৈরি, পরিবারও বিয়ে দেয়ার জন্য প্রস্তুত। কিন্তু বিয়ে ভেঙ্গে যাচ্ছে উত্ত্যক্তকারীদের কারণে। বারবার বর পক্ষ এসে উত্ত্যক্তকারীদের মারধোরের শীকার হয়ে ফিরে যাচ্ছে।

ভারতের বিহারের ভোজপুর জেলার রতনপুর গ্রামে এমনটাই হচ্ছে। তবে অবাক করার বিষয়টি হল, কয়েকদল বানরের জন্য এমন সমস্যা হচ্ছে! সারা গ্রামভর্তি ছোট-বড় হাজার হাজার বানরের রাজত্ব চলছে গ্রামটিতে। বানরের সন্ত্রাসী কার্যকলাপে একেবারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে গ্রামবাসীরা।

গ্রামবাসীদের জিনিস চুরি, হঠাৎ মারধর করা তো আছেই, যদি বিয়েবাড়ি বা কোনও শোভাযাত্রা হয় গ্রামে তাহলে মুহূর্তে সেই শোভাযাত্রার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে হামলা করে বানররা।

গ্রামবাসীরা জানান, কয়েকবছর আগে একটি বিয়েবাড়ির শোভাযাত্রায় বানরদের হামলায় মৃত্যুও হয়েছিল। তারপর থেকেই ওই গ্রামে বিয়েবাড়িসহ কোনওরকম শোভাযাত্রা নিষিদ্ধ হয়ে গেছে। শোভাযাত্রা দেখলেই বানরদের সন্ত্রাস শুরু হয় যায়।

সেজন্য রতনপুরের মেয়েরা বিয়ে করেন না বলে জানালেন গ্রামবাসীরা। শুধু রতনপুরই নয়, সংলগ্ন বেশ কয়েকটি গ্রামেই এভাবেই বানরের দল দাপট দেখাচ্ছে। এ বিষয়ে প্রশাসনকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত