ডানা মেলার জন্য প্রস্তুত প্রধানমন্ত্রীর “গাঙচিল”

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে অনেক আগেই যুক্ত হয়েছিল বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তির একটি ড্রিম লাইনার উড়োজাহাজ “গাঙচিল”। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যস্ততায় এটিকে আকাশে উড়াতে একটু বিলম্ব হয়েছিল। তবে সব অপেক্ষা শেষ করে আজ গাঙচিলের ডানা খুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনাল থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নতুন বোয়িং (৭৮৭-৮) ‘গাঙচিল’ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর প্রধানমন্ত্রী উড়োজাহাজটিতে আরোহণ করেন এবং ককপিটসহ বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখেন।

উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে বিকেল সাড়ে ৫টায় উদ্বোধনী ফ্লাইটে আবুধাবির উদ্দেশ্যে প্রথমবারের মত আকাশে ডানা মেলবে ‘গাঙচিল’। গত ২৫ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের সিয়াটল থেকে দেশে আসে ‘গাঙচিল’। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পছন্দে উড়োজাহাজটির নামকরণ করা হয় ‘গাঙচিল’। এর মধ্য দিয়ে ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়ালো তিনে।

Prime Minister in Gangchil

২০০৮ সালে মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে ১০টি নতুন উড়োজাহাজ কেনার জন্য ২১০ কোটি মার্কিন ডলারের চুক্তি করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

এর আগে এগুলোর মধ্যে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দু’টি নতুন বোয়িং ৭৩৭-৮০০ যুক্ত হয়েছে। বাকি চারটি ড্রিমলাইনারের ২০১৮ সালে বাংলাদেশ বিমানের বহরে আকাশবীণা ও হংসবলাকা যুক্ত হওয়ার পর আজ যুক্ত হলো ড্রিমলাইনার গাঙচিল। আগামী সেপ্টেম্বর মাসে দেশে আসতে পারে চতুর্থ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’।

রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের টিকিট মোবাইল অ্যাপ পাওয়া যাবে। আগামী অক্টোবর থেকে মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করে বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে বিমানের টিকিট ক্রয় করা যাবে। ফলে বিমানের টিকিট কাটা নিয়ে গ্রাহকদের আর ভোগান্তি পোহাতে হবে না

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত