জুনায়েদের ইচ্ছাশক্তি………

সুযোগ অনেকেই পায় তবে কল্যাণকর ইচ্ছাশক্তি সেবামূলক মনোভাব সবার মাঝে থাকেনা! আমাদের কল্যাণে আমাদের অজান্তে,প্রকাশ্যে কিংবা আড়ালে নিজের পরিবার পরিজনকে সময় না দিয়ে দিনরাত এক করে এত শ্রম দিয়ে চলেছে যারা, আমরা কি কখনো ভেবে দেখেছি তাদের কথা? আমাদের কি প্রতিদান দেওয়া উচিত তাদের?

আমাদের কল্যাণে আমাদের সেবায় যাদের এত শ্রম, তাদের প্রতি আমাদের কি প্রতিদান দেওয়া উচিত বা তাদের প্রতি আমাদের কি ধরণের আচরণ হওয়া উচিত আমাদের? যে মানুষগুলো মানুষের কল্যাণের লক্ষে দিন রাত এক করে সর্বদা ক্লান্তিহীন কাজ করে চলেছে ,তাদের প্রতি আমাদের প্রতিদান কি হওয়া উচিত আমরা কি কখনো ভেবে দেখেছি।

আমরা যখন নিজ পরিবারের সাথে অযথা ব্যাস্ত সময় পার করছি রাতে নিশ্চিন্তে ঘুমোতে যাচ্ছি তখন আমাদের কল্যাণে আমাদের সেবায় একশ্রেণীর মানুষ ক্লান্তিহীন কাজ কাজ করে চলেছে হয়তোবা আমরা কখোনই ভাবিনি তাদের কথা।

তারাও তো মানুষ, তবে কেন তারা নিজের সবকিছু দুরে রেখে দিন রাত এক করে আমাদের কল্যাণে, আমাদের সেবায় কাজ করে চলেছে হয়তোবা আমরা কখনো তা ভাবিনা। আমরা নিজ পরিবার নিয়ে ব্যাস্ত,আমরা রাতের ঘুমে ব্যস্ত। চাইলে যে কেউ সমাজ বা জাতির মঙ্গলের জন্য কাজ কোরতে পারেনা কারন সবার মাঝে সেবা মুলক মনোভাব থাকেনা আর সবার দারা এসব সম্ভবও না ।

আমরা মানুষ আবার। সেই মানুষ গুলোকেই অমূল্যায়ন করি! কিছু মানুষ আমরা তাদেরকে এই প্রতিদান দিয়ে থাকি! এই কি মানুষের মূল্যবোধ, মানবিকতা ও নৈতিকতা? আমরা মানুষ আজকে এই পৃথিবীতে কিসের বড়াই করি? এই বড়াই কি আমরা সেই পরকালেও করতে পারবো?

মানুষ আজকে আমরা দুনিয়ার-পৃথিবীর মোহে মগ্ন হয়ে পড়েছি। এই পৃথিবীতে কি মানুষ চিরস্থায়ী হয়ে থাকবে, বা এই পৃথিবীটাই কি চিরস্থায়ী থাকবে? কখনোই না । পৃথিবীর কোনকিছুই চিরস্থায়ী নয়। এটাই চিরন্তন সত্য ও বাস্তব। আজকে যারা মানুষের বা জনগণের কল্যাণে ও সেবায় কাজ করে যাচ্ছে আমরা মানুষ আবার সেই মানুষগুলোকেই অমূল্যায়ণ করে চলেছি তাদের কল্যাণমূলক ও সেবামুলক মনোভাবে আঘাত করছি । এই প্রকৃত মানুষের মন-মানসিকতা? এই কি আমাদের মানবিকতা?

আমরা কি একবারও ভেবে দেখেছি, যে মানুষ আমাদের কল্যাণে দিন রাত কাজ করে চলেছে সেই মানুষগুলোকে আমরা অমূল্যায়ন করছি। তাহলে সেই মানুষগুলো কিভাবে মানুষের কল্যাণে কাজ করবে? কিভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াবে? আমরাতো কল্যাণমূলক ও সেবামুলক কাজ করতে পারছিনা, তাহলে যারা অন্যের কল্যানে ও সেবায় সর্বদা কাজ করছে তাদের কল্যাণমূলক মনোভাব কেন নষ্ট করছি? তাহলে কেমন করে মানুষ মানুষের কল্যাণে কাজ করবে?

দেশে এমন অনেক মানুষ আছে যারা আমাদের কাছ থেকে অমূল্যায়িত হওয়া সত্ত্বেও তারা এখন পর্যন্ত মানুষের কল্যাণে কাজ করে চলেছে। তাদের দেখে আমাদের শিক্ষা নেওয়া উচিত। যে তারা আমাদের কাছে অমূল্যায়িত হয়েও আমাদের কল্যাণেই কাজ করে চলেছে।

যারা আমাদের কল্যানে আমাদের সেবায় সর্বদা কাজ করে চলেছে তাদের প্রতি কিরূপ আচরণ হওয়া উচিত আমাদের। আর তাদের প্রতি কি প্রতিদানে দেওয়া উচিত আমাদের। প্রশ্ন রেখে গেলাম আপনাদের কাছে।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত