জাতীয় শিল্পকলা একাডেমিতে “বর্ষামঙ্গল”

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে আজ ২৭ আষাঢ় ১৪২৬/ ১১ জুলাই ২০১৯ সন্ধ্যা ৬টায় একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে বর্ষার সঙ্গীত ও নৃত্যানুষ্ঠান ‘বর্ষামঙ্গল’ আয়োজন করা হয়েছে।  বৃষ্টিধারা ও সঙ্গীতের সুর মূর্ছনায় সন্ধ্যার আয়োজনে শুরুতেই ছিলো যন্ত্রসঙ্গীত।

এরপর শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। সন্তানদেরকে ঋতু বৈচিত্র উপভোগ করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য অভিবাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মহাপরিচালক বলেন – আমাদের অসাধারণ ছয়টি ঋতু, কিন্তু শহরে বাসে আমরা তা উপভোগ করতে পারিনা। ছয়টি ঋতু নিয়ে যেসব শিল্প আমরা নির্মান করেছি তা বিশ্বে বিরল।

অনুষ্ঠানে একাডেমির সংগীত শিল্পীর সমবেত সংগীত পরিবেশন করেন। মন মোর মেঘের সঙ্গী, এসো হে সজল শ্যাম ঘন দেয়া, অম্রৃত মেঘের বারি, আজি ঝর ঝর মুখর বাদল দিনে এবং গহন ঘন ছাইলো গানের কথায় সমবেত সঙ্গীত পরিবেশিত হয়। পরদেশী মেঘ, শাওন গগন ঘোর ঘনঘটা এবং বর্ণে গন্ধে ছন্দে গীতিতে গানের কথায় সমবেত নৃত্য পরিবেশন করবে একাডেমির নৃত্য শিল্পীবৃন্দ।

একাডেমির সংগীত শিল্পীরা একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন। ‘মেঘ বলছে যাবো যাবো’ গান পরিবেশন করবেন শিল্পী মোহনা দাস, ‘সখী বাঁধলো বাঁধলো ঝুল নিয়া’ পরিবেশন করবেন শিল্পী হিমাদ্রী রায়, ‘এই মেঘলা দিনে একলা’ গান পরিবেশন করবেন শিল্পী সোহানুর রহমান, ‘যদি মন কাঁদে তুমি চলে এসা’ পরিবেশন করবেন শিল্পী সুচিত্রা সূত্রধর, ‘আকাশ মেঘে ঢাকা’ পরিবেশন করেন শিল্পী-আবিদা রহমান সেতু, ‘সমুদ্রের কিনারে বসে’ পরিবেশন করবেন শিল্পী হীরক সর্দার, ‘আষাঢ মাইসা ভাষা পানি রে’ গান করবেন শিল্পী রোখসানা আক্তার রূপসা, ‘শ্রাবণের মেঘগুলো’ গান করবেন শিল্পী রাফি তালুকদার।

Bangladesh Art Academy

এছাড়াও রবীন্দ্র সঙ্গীত পরিবেশন করে শিল্পী নবনীতা, নজরুল সঙ্গীত শিল্পী ইয়াসমীন মুস্তারী, আধুনিক গান শিল্পী রফিকুল আলম এবং লোকগীতি পরিবেশন করে শিল্পী আবু বকর সিদ্দীন। অনুষ্ঠানে আবৃত্তি পরিবেশন করেন শিল্পী কৃষ্টি হেফাজ। অনুসন্ধানী প্রামান্যচিত্র ‘ক্ষমাহীন নৃশংসতা’ প্রদর্শনী আজ বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে নাট্যকলা ও চলচ্চিত্র বিভাগের ব্যবস্থাপনায় আগামীকাল ১২ জুলাই বিকাল ৫টায় একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে মিডিয়া শিক্ষক ও টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব ফুয়াদ চৌধুরী নির্মিত অনুসন্ধানী প্রামান্যচিত্র ‘ক্ষমাহীন নৃশংসতা’ প্রদর্শনী ও আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক, এমপি এবং প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, এমপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিতন্ত্রী জনাব কে এম খালিদ, এমপি।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সম্মানীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করবেন একাডেমির নাট্যকলা ও চলচ্চিত্র বিভাগের পরিচালক বদরুল আনম ভূঁইয়া এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করবেন চলচ্চিত্র নির্মাতা ফুয়াদ চৌধুরী।

উদ্বোধনী আলোচনা শেষে পরিবেশিত হবে ফুয়াদ চৌধুরী নির্মিত অনুসন্ধানী প্রামান্যচিত্র “ক্ষমাহীন নৃশংসতা”।

#ওয়াসিম এমদাদ, স্টাফ রিপোর্টার।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত