ধর্ষকের শাস্তির দাবিতে রাবি শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

দেশে ধর্ষণ বৃদ্ধির প্রতিবাদ ও ধর্ষকদের শাস্তির দাবি জানিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছে। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর একাডেমিক ভবনের সামনে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের উদ্যোগে এই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

মানববন্ধনে বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী আলী ইউনুস হৃদয়ের সঞ্চালনায় সহযোগী অধ্যাপক মশিহুর রহমান বলেন – পত্রিকা খুললেই একাধিক ধর্ষণের খবর পাই। আর এই ধর্ষণের সাথে জড়িতদের বেশির ভাগই প্রভাবশালী গোষ্ঠী। ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হবার পরেও তাদেরকে বিচারের আওতায় আনা হচ্ছে না। আর এ কারণেই ধর্ষকরা বারবার পার পেয়ে যাচ্ছে।

তিনিআরো বলেন – ধর্ষণ করেও তারা সবসময় লোকচক্ষুর আড়ালে থেকে যাচ্ছে। এখন মাÑবাবা তার সন্তানদের নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। আমাদের সমাজে আজ বিচারহীনতার সংস্কৃতি তৈরি হয়েছে যা এই ধরনের কাজকে প্রশ্রয় দিচ্ছে। আমরা চাই সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিচারের আওতায় আনা হোক।

বিভাগের অধ্যাপক ড. প্রদীপ কুমার বলেন – আজকাল যে ঘটনাগুলো ঘটছে তা একদিনে হয়নি। ধারাবাহিকতার মাধ্যমে ঘটনাগুলো ঘটছে। এসব তারই বহি:প্রকাশ। আমাদের মানবিক মূল্যবোধের চরম অবক্ষয় হয়েছে, যতদিন না মূল্যবোধ পরিবর্তন হবে ততদিন এসব কার্যকলাপ বন্ধ হবে না। মেয়েরা সমাজ ও পরিবারের ভয়ে যৌন হয়রানি কথা চেপে রাখে। বিগত তিন মাসে যে ধর্ষণ হয়েছে তা দেশের সর্বকালের রেকর্ড। ধর্ষণ ও যৌন হয়রানি বন্ধে সরকারের পাশাপাশি আমাদেরকেও সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। মানুষের মূল্যবোধ জাগ্রত হলেই ধর্ষণ ও যৌন হয়রানি বন্ধ করা সম্ভব।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীদের মধ্যে মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মোল্লাহ্ মোহাম্মদ সাঈদ বক্তব্য দেন। এসময় বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোজাম্মেল হোসেন বকুল, নাজিয়াত হোসেন চৌধুরী, মাহাবুবুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক দিল আফরোজা খাতুন, মাহাবুর রহমান, আমেনা খাতুনসহ বিভিন্ন বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

#তানভীর ইসলাম, রাবি প্রতিনিধি।

পাঠকের মতামত