প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি, রোহিঙ্গা যুবক আটক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনায় এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করে মালেশিয়ার টেরোরিজম বিভাগ। আবদুল খালেক নামের রোহিঙ্গা যুবকটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দিয়ে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করে। তার সাথে আরও তিনজনকে আটক করা হয় বলে জানায় মালয়েশিয়া শীর্ষস্থানীয় অনলাইন পোর্টাল মালয় মেইল।

মঙ্গলবার মালয় মেইলে প্রকাশিত খবরে বলা হয় – বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও বার্তা দিয়ে আসছিলেন ৪১ বছর বয়সী এই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী।

এরই সূত্র ধরে, এই হুমকিদাতাসহ চার সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির কাউন্টার টেররিজম বিভাগ (ই-৮)। খবরে বলা হয়, এ চার সন্ত্রাসী চরমপন্থি গ্রুপের সঙ্গে জড়িত; যার মধ্যে একজন রোহিঙ্গা। ওই ব্যক্তি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দিয়ে একটি ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করেন।

মালয়েশিয়ার পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল আব্দুল হামিদ বদর এক বিবৃতিতে বলেন – ২৪ জুন হুমকিদাতা ওই রোহিঙ্গাকে কেদা সুঙ্গাই পেতানি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। হুমকিদাতা সুঙ্গাই পেতানি এলাকায় একটি নির্মাণ সাইটে কাজ করতেন।

দেশটির পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তার হওয়া ওই ব্যক্তি আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (এআরএসএ) সমর্থক। আবদুল হামিদ বদর বলেন – ১৯৯৭ সালে মালয়েশিয়ায় আসা খালেকের বিরুদ্ধে ২০১২ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত মানবপাচার ও চোরাচালান কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

মালয়েশিয়ার পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল আরও বলেন, পেনাল কোডের (অ্যাক্ট ৫৭৪) অধীনে সন্ত্রাসবাদ দমন এবং নিরাপত্তা অপরাধ (বিশেষ ব্যবস্থা) ২০১২ (আইন ৭৪৭) আইনে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত