লক্ষ্মীপুর জেলা ত্রাণ ও পুনবার্সন অফিসে অনিয়মের সত্যতা পেয়েছে দুদক

লক্ষ্মীপুর জেলা ত্রাণ ও পুনবার্সন অধিদপ্তরের ১২ কোটি টাকার দরপত্রে অনিয়মের সত্যতা পেয়েছে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বুধবার (১০ জুলাই) জেলা ত্রাণ ও পুর্নবাসন অফিসে অভিযান পরিচালনা করে এ অনিয়মের সত্যতা পায় দুদক।

দুদকের নোয়াখালী শাখার সহকারি পরিচালক সোবেল আহমেদ বলেন – ১২ কোটি টাকার ব্রীজ ও কালভার্ট দরপত্র বিক্রি ও কাজ ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে অনিয়মের বিষয়টি জেনেছি। সেই সূত্র ধরে জেলা ত্রাণ ও পুনবার্সন অফিসে অভিযান পরিচালনা করে বিষয়টি সত্যতা পাওয়া যায়। টেন্ডারটি বাতিলের জন্য দূর্নীতি দমন কমিশনে সুপারিশ করা হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে লক্ষ্মীপুরের ৫টি উপজেলার ব্রীজ ও কালভার্ট নির্মাণ প্রকল্পের জন্য ঠিকাদারদের কাছে দরপত্র আহ্বান করা হয়। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে ঠিকাদাররা দরপত্র ক্রয় করতে পারেনি । দরপত্র ক্রয়ে বঞ্চিত হওয়া ঠিকাদারেরা অভিযোগ করেন, জেলা ত্রাণ ও পুর্নবাসন কর্মকর্তার যোগসাজসে ক্ষমতাসীন দলের একটি প্রভাবশালী মহল ১২ কোটি টাকার টেন্ডার ভাগ-বাটোয়ারা হয়।

#মো: রবিউল ইসলাম খান, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি।

পাঠকের মতামত