ইরানের বিরুদ্ধে হুঙ্কার ছাড়লেন সৌদি যুবরাজ!

ওমান উপসাগরে তেলবাহী ট্যাংকারে প্রথমবার হামলা হওয়ার পর চুপ ছিল সৌদি আরব। তবে দ্বিতীয়বার হামলার প্রথমবারে মত মুখ খুললেন সৌদি যুবরাজ। তিনি ট্যাংকার হামলায় সরাসরি ইরানকেই দায়ী করছেন! তিনি বলেন – রিয়াদের স্বার্থে আঘাত হানলে, যে কোনো হুমকি মোকাবেলায় সৌদি দ্বিধা করবে না।

রোববার আরবভিত্তিক দৈনিক আশারক আল আওসাতকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে যুবরাজ বলেছেন – আমরা এই অঞ্চলে যুদ্ধ চাই না। তবে আমাদের জনগণ, আমাদের স্বার্বভৌমত্ব, আমাদের আঞ্চলিক অখন্ডতা এবং আমাদের গুরুত্বপূর্ণ স্বার্থের ওপর হুমকি এলে তা মোকাবেলায় আমরা দ্বিধা করব না।

তিনি বলেন – ইরান সরকার তেহরানে জাপানি প্রধানমন্ত্রীর অতিথি হিসেবে উপস্থিত হওয়াকে সম্মান দেখায় নি এবং তার কূটনৈতিক প্রচেষ্টার জবাব দুটি ট্যাংকারে হামলার মাধ্যমে দিয়েছে যার একটি জাপানি।’

বৃহস্পতিবার ওমান উপসাগরে দুটি ট্যাংকারে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এর একটি ছিল জাপানের মালিকানাধীন রাসায়নিকবাহী জাহাজ কোকুকা কোরাজাস। অপরটি নরওয়ের মালিকানাধীন ফ্রন্ট আলটেয়ার। আকাশ থেকে ধারণ করা ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করে যুক্তরাষ্ট্র দাবি করেছে, ইরানই এই হামলা চালিয়েছে। রাসায়নিকবাহী জাপানি ট্যাংকার থেকে একটি যে সামরিক নৌযান গোপনে অবিস্ফোরিত মাইন অপসারণ করেছে সেটি ছিল ইরানের বিপ্লবী বাহিনীর।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত