শিক্ষার্থীদের দাবিকে পাত্তাই দিচ্ছেন না রাবি উপাচার্য

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আবাসিক হলগুলো আগামী ১১ জুনের মধ্যে খুলে দেয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা। আজ রবিবার দুপুরে উপাচার্যের কাছে আবেদন নিয়ে যান শিক্ষার্থীরা। কিন্তু শিক্ষার্থীদের আবেদনে পাত্তা দেননি উপাচার্য অধ্যাপক এম আবদুস সোবহান।

গ্রীষ্মকালীন অবকাশ ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ৩০ মে থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলো ছুটি দেয়া হয়। দীর্ঘ ২৫ দিনের হল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তে তখন থেকেই প্রতিবাদ জানায় শিক্ষার্থীরা। সর্বশেষ আজ রবিবার দুপুরে উপাচার্যের কাছে হল খোলার দাবিতে আবেদনপত্র নিয়ে যায় শিক্ষার্থীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আবেদন নিয়ে যাওয়া এক শিক্ষার্থী বলেন – আমরা আবেদনপত্র দেয়ার জন্য উপাচার্য স্যারের সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করি। এজন্য আমরা জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক ও ভিসির পিএস জাকির ভাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করি। কিন্তু তারা কেউ আমাদের সহযোগিতা করেনি। তারপরও আমরা নিজেরাই উপাচার্যের কাছে আবেদন নিয়ে যাই। কিন্তু তিনি নিজে আবেদনপত্র না নিয়ে অন্য একজনকে পাঠিয়ে তা গ্রহণ করেন। আমরা দেখা করার জন্য অনুরোধ করলেও তিনি তা করেননি।

শিক্ষার্থী আরও বলেন – পরে মুঠোফোনে আমরা স্যারের সঙ্গে কথা বলি। উপাচার্য স্যার মুঠোফোনে আমাদের বলেন, “এই ফাঁকা ক্যাম্পাসে তোমরা কী করছো? বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য তোমরা এসব কাজ করছো। তোমরা আবেদন নিয়ে কেন আসছো? যদি ছাত্রলীগকে সঙ্গে নিয়ে আসতে তবে তোমাদের সঙ্গে দেখা করা যেত। তোমাদের দাবির বিষয়টা ভেবে দেখা যেত। তোমরা পারলে ছাত্রলীগকে সঙ্গে নিয়ে আসো।”

এ বিষয়ে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী রাহিনুল রিংকু বলেন – আমরা যৌক্তিক দাবি নিয়ে ভিসি স্যারের কাছে যাই। কিন্তু তিনি
আমাদের দাবিকে পাত্তা দেননি।

#তানভির ইসলাম, রাবি প্রতিনিধি।

পাঠকের মতামত