রমজান উপলক্ষে নোয়াখালীর হারুন মিয়া’র মহৎ উদ্যোগ

রমজান উপলক্ষে প্রতি বছর এভাবেই দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন গাজীপুর টঙ্গী বাজার এরশাদ নগর ছোট বাজারের ব্যবসায়ী হারুন মিয়া। প্রতি বছরের রমজান মাসে তার এই কার্যক্রমের কারণে উপকৃত হয়ে থাকেন ধনী-গরীব অসংখ্য মানুষ। বিশেষ করে রমজান মাসে তিনি অনেক পণ্য তার ক্রয় মূল্যে বিক্রি করে থাকেন।

হারুন মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি জানান, এই রমজানে ছোলা বুট বিক্রিতে তিনি এক পয়সাও লাভ করবেন না। বাজারের সবচেয়ে বড় পাইকারি দোকানটিই এই হারুন মিয়ার। আশপাশের সব দোকানদার তার দোকান থেকেই পাইকারি মাল কেনেন। প্রতিদিন অসংখ্য পণ্য বিক্রি হয় তার দোকানে। রমজানে ছোলা বুট বিক্রির পরিমাণ টন ছাড়িয়ে যায় জানালেন এই ব্যবসায়ী। এবারের রমজানে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভ ও রোজাদারদের উপকারার্থে ছোলা বুট বিক্রিতে এক পয়সাও লাভ করবেন না বলে তিনি জানান। এমনকি কেনা দামের সাথে পরিবহন খরচও যোগ করবেন না হারুন মিয়া। এছাড়া আগামী বছর রমজান মাসে এ রকম তিনটি পণ্য কেনা দামে বিক্রি করবেন বলেও আগাম জানান তিনি।

আল্লাহর হুকুম মেনে ব্যবসা করলে ব্যবসায় বরকতের অভাব হয় না বলে হারুন মিয়া বলেন। তিনি জানান, মাত্র ৬২০ টাকা হাতে নোয়াখালী থেকে তিনি ঢাকা এসেছিলেন। কোনোদিনই পণ্যে ভেজাল দেননি। মাপে কম দেয়ার তো প্রশ্নই আসে না। গরিবের ওপর এহসান করতে চেষ্টা করেছেন। এখন গাজীপুর টঙ্গী বাজারে আটটি বড় বড় দোকান রয়েছে তার। বিশাল ব্যবসা। স্থানীয় এলাকায় তিনতলা বাড়ি। সবই এই ব্যবসা থেকে হয়েছে বলে জানালেন তিনি। আর এই সবকিছু সম্ভব হয়েছে সৎভাবে ব্যবসা করার জন্য। এমনটাই বললেন হারুন মিয়া। দেশের প্রতিটি স্থানেই এমন একজন করে ‘হারুন মিয়া’ থাকুক। এমনটাই প্রত্যাশা আমাদের।

#ওয়াসিম এমদাদ, স্টাফ রিপোর্টার।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত