বিশ্ব মা দিবস : ঋণের দায় নিতে না পেরে ক্রিকেটার ও মায়ের আত্মহত্যা

ছেলেটির নাম বিনোদ। খেলতো ভারতের মহারাষ্ট্রের পূর্ব সাইবা ক্লাবের হয়ে। তবে ক্রিকেট খেলে যে আয় হতো তাতে সংসার চালানো মুশকিল হয়ে যেত, একটি খন্ডকালীন চাকরিও করতো সে। কিন্তু ঋণের বোজা যেন বেড়েই চলছিল। তাই নিরুপায় হয়ে মাকে নিয়ে আত্মহত্যা করলো ছেলেটি।

বিনোদের মায়ের নাম সঞ্জিবনী চৌগুল। কিছু দিন আগে বিনোদের বাবা-মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। পরে মায়ের সঙ্গে ভিরারের নারাঙ্গির একটি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন তিনি। সব মিলিয়ে ছোট সংসার। তবে আয়ের চেয়ে খরচটাই হচ্ছিল বেশি। দিন দিন বেড়ে চলছিল ঋণ। সেই টাকা শোধ করতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন তারা। স্থানীয় পুলিশ তেমনটাই ধারণা করছে। এ নিয়ে লোকাল থানায় অপমৃত্যুর মামলাও হয়েছে।

গেল শুক্রবার রাতে ভিরারের ওই ফ্ল্যাট থেকে বিনোদ ও সঞ্জিবনীর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের পর স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন মা-ছেলে।

ক্রিকেটপাগল দেশ ভারত। স্বাভাবিকভাবেই ক্রিকেটারের মৃত্যুতে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে সেখানে। কিছু দিন আগে সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড় তরুণ ক্রিকেটারদের বৃত্তি দেয়ার দাবি উত্থাপন করেন। কারণ ক্যারিয়ার গঠনে ব্যর্থ হলে জীবিকার জন্য অন্য পথ বেছে নিতে পারেন না তারা। ক্রিকেট খেলতে গিয়ে তাদের পড়াশোনাও ঠিকভাবে হয় না। তাই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডকে (বিসিসিআই) বিষয়টি নিয়ে ভাবার দাবি জানিয়েছেন দ্য ওয়ালখ্যাত ক্রিকেটার।

পাঠকের মতামত