“নারী ও শিশু নির্যাতন ঠেকাতে চাই সাংস্কৃতিক গণজাগরণ”

ফেনীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যাসহ সারাদেশে চলমান নারী ও শিশু নির্যাতন ঠেকাতে হলে চাই সাংস্কৃতিক গণজাগরণ। গত ২৭ এপ্রিল শনিবার বিকালে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে আয়োজিত “নারী ও শিশু নির্যাতনবিরোধী প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ”-এ বক্তারা এমন মন্তব্য করেছেন।

বক্তারা বলেন – অতীতে ঘটে যাওয়া নারী ও শিশু নির্যাতন এবং হত্যাকা-ের সুষ্ঠু ও দৃষ্টান্তমূলক বিচার না হওয়ার কারণেই মূলত নির্যাতনকারীরা একের পর এক এমন নৃশংস ঘটনা ঘটানোর সাহস পাচ্ছে। এসময় বক্তারা শুধু নুসরাত নয়, কুমিল্লার সোহাড়ী জাহান তনু এবং ঢাকায় আফসানাসহ বিভিন্ন সময়ে ঘটে যাওয়া সব নারী ও শিশু নির্যাতনের দ্রুত বিচার ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানান।

নারী ও শিশু নির্যাতনবিরোধী সাংস্কৃতিক পর্ষদ আয়োজিত কর্মসূচির শুরুতেই গান পরিবেশন করে কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের শিশু শিল্পীরা। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সভাপতি অধ্যাপক ড. সফিউদ্দিন আহমদ-এর সভাপতিত্বে কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি অধ্যাপক বদিউর রহমান, বাংলাদেশ লেখক শিবিরের সাধারণ সম্পাদক কাজী এবিএম ইকবাল, নিখিল দাস, কবি হাসান ফকরি, কবি মাশুক শাহী, খেলাঘর আসরের শ্যামল বিশ্বাস প্রমুখ।

Untitled

এছাড়া, দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করে বিবর্তন। একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন সুব্রত বিশ্বাস, খোরশেদ আলম মামুন, তিথি সুবর্না, অভি জাহিদ, রঘু অভিজিৎ রায় প্রমুখ। এছাড়া, একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন সুস্মিতা রায় সুপ্তি।

বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী, চারণ, বিবর্তন, খেলাঘর, আসাদ পরিষদ, সমাজ অনুশীলন কেন্দ্র, ধাবমান সাহিত্য আলোচনা, বাংলাদেশ লেখক শিবিরসহ দেশের প্রগতিশীল বেশ কয়েকটি সাংস্কৃতিক সংগঠন মিলে গঠন করা হয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতনবিরোধী সাংস্কৃতিক পর্ষদ।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত