নেপালে রানওয়েতে থাকা দুই হেলিকপ্টারকে ধাক্কা দিয়ে বিমান বিধ্বস্ত

নেপালের লোকলা বিমানবন্দরকে পৃথিবীর সবথেকে কঠিন এবং দুরূহ একটি বিমানবন্দর হিসেবে সবাই চেনে। সে বিমানবন্দরে উডয়নকালে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়। এই দুর্ঘটনায় ৩ নিহত এবং চারজন আহত হয়।

কাঠমুন্ডু পোস্টের এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, আজ রোববার সকালে সামিট এয়ারের বিমানটি উড্ডয়নের সময় রানওয়েতে থাকা দুটি হেলিকপ্টারকে সজোরে ধাক্কা নিয়ে ৩০ থেকে ৪০ মিটার দূরে ছিটকে পড়ে।

ত্রিভুবন বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রতাপ বাবু তেওয়ারি জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে একজন সহকারী পাইলট ও দুজন পুলিশ সদস্য। এর মধ্যে সহকারী পাইলট এস দুঙ্গানা এবং পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) রাম বাহাদুর খাদা ঘটনাস্থলেই মারা যান। আরেক এএসআই রুদ্র বাহাদুর শ্রেষ্ঠা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এর আগে গত বছরের ১২ মার্চ কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার একটি বিমান বিধ্বস্ত হলে ৭১ আরোহীর মধ্যে ৫১ জনের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে চার ক্রুসহ ২৭ জন ছিলেন বাংলাদেশি।

পাহাড়ে ঘেরা নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরকে বিশ্বের সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বিমানবন্দরগুলোর একটি বিবেচনা করা হয়।

পাঠকের মতামত