পহেলা বৈশাখের আবহাওয়া কেমন থাকবে?

আগামিকাল বাংলা নববর্ষ। বাংলা বৈশাখ মাসে ১ তারিখ। এই দিনটিকে বাঙ্গালী জাতি মহানান্দে উদযাপন করে থাকে। পান্তা-ইলিশ, সাথে একটুখানি পেঁয়াজ, এইতো পহেলা বৈশাখ। সারাদেশে এখন চলছে “এসো হে বৈশাখ, এসো এসো”।

তবে গতকয়েকদিন রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় কালবৈশাখীর হানা এবারের পহেলা বৈশাখের উৎসবে একটু চিন্তার কারণ। বিশেষ করে হঠাৎ হঠাৎ  করে দমকা হাওয়া, শিলাবৃষ্টি নিয়ে হয়তো নতুন সাজে বের হওয়ার অপেক্ষায় থাকা মানুষগুলো চিন্তা করতেই পারেন।

এদিকে আগামিকালের আবহাওয়া নিয়েও ভালো সংবাদ দিলোনা আবহাওয়া অফিস। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করায় সারাদেশে অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদফতর। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শনিবার সকাল ৯টা থেকে রবিবার (পহেলা বৈশাখ) সকাল ৯টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে একথা জানানো হয়েছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এজন্য ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। আজ শনিবার সকাল ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ৯৫ শতাংশ। যদিও বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখে ঝড়ো হাওয়া বা ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই বলে গতকাল একটি গণমাধ্যমকে জানান আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান। তবে তিনি বলেন, হালকা বৃষ্টি হতে পারে।

তিনি জানান, ১৪ এপ্রিল পহেলা বৈশাখে আবহাওয়া পরিস্থিতি ভাল থাকতে পারে। কালবৈশাখী বা ঝড়ো হাওয়ার সম্ভাবনা নেই। ভারি বা মাঝারি বৃষ্টিরও সম্ভাবনা নেই। তবে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। পাশাপাশি তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে পারে।

পাঠকের মতামত