বিমানবন্দর থেকে দোকান সরিয়ে নিতে বললেন বিমান সচিব, দোকানিদের ক্ষোভ

ব্যবসায়ীরা দোকান না সরনোর পেছনে যুক্তি দেখিয়ে বলেন – লাখ লাখ টাকা জমা দিয়ে দোকান ইজারা নিয়েছি। এখন হঠাৎ করে দোকান সরিয়ে নেওয়ার কথা বলে আমাদেরকে বিপদে ফেলে দিয়েছে।
ওই লাউঞ্জের খাবার দোকান ফেয়ার টেস্ট-এর ম্যানেজিং পার্টনার জাকির হোসেন বলেন – আমরা সিভিল এভিয়েশন থেকে সব ধরনের আনুষ্ঠানিকতা মেনে বিমানবন্দরে দোকান ইজারা নিয়ে পরিচালনা করি। কিন্তু গতকাল বিমান সচিব মহিবুল হক এসে শনিবারের মধ্যে আমাদের দোকান বন্ধ করে চলে যেতে বলেন। তিনি আমাদের কোনো নোটিশও দেননি। কিন্তু প্রিমিয়াম সুইটস ও এ্যারোস নামের দুটো দোকান রহস্যজনকভাবে রাখা হচ্ছে।

পাঠকের মতামত