সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ গঠনের আশ্বাস দিলেন শিক্ষা মন্ত্রী

ডাকসুর মত অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়েও ছাত্র সংসদ গঠন করা হবে। বুধবার (১৩ মার্চ) সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ‘স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন’ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষা মন্ত্রী ড. দীপু মনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন – পর্যায়ক্রমে সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে ছাত্র সংসদ গঠন হবে।

ছাত্র সংসদ গঠনের পাশাপাশি ছাত্র সংসদ নির্বাচন করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন – দীর্ঘ ২৮ বছর পর ডাকসু (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ) নির্বাচন হলো। আমরা আশা করছি, পর্যায়ক্রমে সব বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে ছাত্র সংসদ নির্বাচন হবে। অনেক দিন হয়নি, কিন্তু এখন যেহেতু আমরা শুরু করেছি, কাজেই এখন সব জায়গায়ই যেন হয়। আমরা আশা করি, সব জায়গায়ই নির্বাচন হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন – যেখানে প্রতিবছর স্কুলের নির্বাচন করছি প্রতিবছর, সেখানে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতেও হওয়া জরুরি। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিজেদের প্রস্তুতি ও সিদ্ধান্তের বিষয় রয়েছে। যেহেতু এটি একটি গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা, আমরা সেটি কারও উপর চাপিয়ে দিতে চাই না। আমরা চাই, সুন্দর পরিবেশে, সুষ্ঠুভাবে সকল প্রতিষ্ঠানে এই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থার চর্চা হোক।

কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন – যেহেতু ডাকসু হয়েছে, আমি আশা করি, বাকিগুলোও হবে। আমরা চাই, সকল ক্ষেত্রে এ নির্বাচন হোক। হাজার স্কুলে কোটির বেশি ভোটার সুন্দরভাবে ভোট দিচ্ছে। আমাদের সব জায়গায় করা উচিৎ। আমাদের দিক থেকে সকল সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

সম্মেলনে তিনি কোচিং বাণিজ্য নিয়েও কথা বলেন। তিনি কোচিং বাণিজ্য করা শিক্ষকদের হুশিয়ারি দেন। তিনি বলেন – অনেক রকম কোচিং সেন্টার আছে। যারা আইইএলটিএস -এ ভর্তি কোচিং করায় তাদের নিয়ে সমস্যা নেই। দুর্বল শিক্ষার্থী, যাদের আরেকটু সহযোগিতা দরকার, স্কুলের পড়াশোনার বাইরেও দরকার, সেখানে কোচিং করানো যেতে পারে।

কোচিং বাণিজ্য করা শিক্ষকদের হুশিয়ারি দিয়ে দীপু মনি বলেন – সমস্যা হচ্ছে শিক্ষক তার ক্লাসে শিক্ষাদান যতখানি করার কথা বা সময় দেওয়ার কথা, তা না দিয়ে তিনি যখন বাইরে কোচিং করান এবং শিক্ষার্থীদের তার কোচিংয়ে যেতে বাধ্য করান। না আসলে কখনো কখনও ফেল করানোর কথা বলেন, সেটি খারাপ। এদের চিহ্নিত করে তা বন্ধ করতে হবে।

এদিকে, আগামিকাল মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল মাদ্রাসায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে । এ বছর দেশের ২২ হাজার ৯৬১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল মাদ্রাসায় হচ্ছে ভোট।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত