ছাত্রলীগের মুখে মধু, অন্তরে বিষ – নব নির্বাচিত ভিপি নুর

ঢাকসু নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে উত্তেজোনা কিছুটা কমেছে। গতকাল (১২ মার্চ) বিকালে টিএসসি মিলনায়তনে হঠাৎ হাজির হয়ে নবনির্বাচিত ভিপির সঙ্গে কোলাকুলি করেন শোভন। ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের সঙ্গে কোলাকুলির পর সংগঠনটির প্রতি আস্থা রাখার ক্ষেত্রে নিজের সংশয়ের কথা জানালেন ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নূর।

এই প্রসঙ্গে নব ভিপি বলেন – শোভন ভাই আমার হলের বড় ভাই। আমরা একই পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছি। আমি বিজয়ী হয়েছি, উনি আমাকে স্বাগত জানিয়েছেন, আমিও তাকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

নিজের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনার কথা মনে করিয়ে দিয়ে নূর বলেন – আমি শোভন ভাইকে বলেছি। তিনি কি ব্যবস্থা নেন, সেটার জন্য অপেক্ষা করছি।

এদিকে গতকাল বিকেলে শোভনের শুভেচ্ছা বিনিময়কে শুভ সংকেত হিসেবে দেখছে ঢাবি ছাত্র-ছাত্রিরা। তারা মনে করে এর মাধ্যমে নির্বাচনের ফলাফল নিয়ে চলমান উত্তেজনার অবসান হবে বলে।

উল্লেখ্য, গত ১১ মার্চ সোমবার রাত ৩টা ১৭ মিনিটে ডাকসু নির্বাচনের ফল প্রকাশকালে ভিপি পদে তাকে বিজয়ী ঘোষণার পর ‘শিবির’ আখ্যা দিয়ে মেনে না নেয়ার ঘোষণা দেয় ছাত্রলীগ।

এরপর থেকেই নূরকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে আসছে ছাত্রলীগ। এর আগে তার ও তার অনুসারীদের বিরুদ্ধে মামলার হুমকি দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবারও সকাল থেকে নূরবিরোধী কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছিল ছাত্রলীগ।

এমনকি দুপুরে ক্যাম্পাসে ঢোকার পরপরই টিএসসির সামনে নূরের ওপর হামলা হয়। এসব ঘটনার পর দুই নেতার কোলাকুলিতে উত্তেজনা দূর হবে বলেই প্রত্যাশা তৈরি হয়।

তবে এর ঘণ্টাখানেক পর টিএসসিতে বামজোটের প্যানেলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর নূর সাংবাদিকদের বলেন – তাদের (ছাত্রলীগের) মুখে মধু, অন্তরে বিষ। এ সময় তিনি এর আগেও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের হাতে হামলার শিকার হওয়ার কথা তুলে ধরে বলেন – বেগম রোকেয়া হলে ছাত্রলীগ আমাদের মেরেছে।

তিনি অভিযোগের সুরে আরো বলেন – গত ৩০ জুনও তারা আমাকে মেরেছিল। আজকেও শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি হিসেবে আমি টিএসসিতে এসেছি, কিন্তু আমাকে তারা ধাওয়া দিয়েছে।

ভিপি নুর বলেন – ক্ষমতাসীনরা যখন সুবিধাজনক মনে করে, যখন আমাদের লাগে- তখন বুকে টেনে নেয়। আবার যখন মনে করে আমরা শত্রু, তখন মার দেয়।

পাঠকের মতামত