সড়ক দুর্ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নিহত, দুমড়ে-মুচড়ে গেছে প্রাইভেটকার

ছবি - সংগৃহীত।

বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা লেগে একটি প্রাইভেটকার দুমড়ে-মুচড়ে শাকিল আহমেদ তুর্য (২৩) নামে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার গভীর রাতে রাজধানীর প্রগতি সরণিতে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। তুর্য নিজেই গাড়িটি চালাচ্ছিলেন। এসময় ফারদিন খান (২৪) নামে প্রাইভেটকারের অপর যাত্রী তুর্যের মামাতো ভাই গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে প্রাইভেটকারটি নিয়ন্ত্রণ হারালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে, গুলশান থানার এসআই আল হেলাল গনমাধ্যমকে জানান, শাকিল আহমেদ তুর্যের বড় ভাইয়ের বিয়ে উপলক্ষে জরুরি প্রয়োজনে মামাতো ভাইকে নিয়ে বসুন্ধরা যাচ্ছিলেন। এসময় প্রগতি সরণিতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি একটি বিদ্যুৎ খুঁটিকে সজোরে ধাক্কা মারে। এতে বিদ্যুৎ খুঁটিটি গোড়া উপড়ে প্রায় কয়েক গজ দূরে সরে যায়।

সড়ক দুর্ঘটনা , দুমড়ে-মুচড়ে

তিনি জানান, প্রাইভেটকারটির দুমড়ে-মুচড়ে ফুটপাত অতিক্রম করে একটি দোকানের শাটার ভেঙে ফেলে। এ সময় গাড়ির গ্যাস সিলিন্ডারটি খুলে রাস্তায় পড়ে যায়। তবে অল্পের জন্য এটি বিস্ফোরিত হয়নি।

পথচারীরা এসে গাড়ি থেকে আহত দুজনকে উদ্ধার করে অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোরে মারা যান তুর্য।

পাঠকের মতামত