বিপিএল ফাইনাল : তামিম-ইমরুলের কন্ঠে একই বার্তা

বিপিএলে এই প্রথম তামিমের দল ফাইনালে পা দেয়। এরআগে বিপিএলে নিজের অনেক ব্যক্তিগত রেকর্ড থাকলেও বিপিএলের ফাইনালে যাওয়া তার জন্য অধুরাই ছিল। অবশেষে বিপিএলের ৬ষ্ঠ সংস্করণে এসে সেই আক্ষেপও দূর করলেন।

কিন্তু প্রথমবার বিপিএলের ফাইনালে উঠে তিনি কি চাপে আছেন? এ ব্যাপারে তিনি বলেন – তেমন বেশী চাপ নিচ্ছিনা। ফাইনালে ওঠে গেছি। এটাই বড় কথা। এমনও প্লেয়ার আছে যারা জীবনে ফাইনালও খেলতে পারেনি। আমরা যদি ফাইনাল হিসেবে নেই, তাহলে এটা ঠিক হবে না। এই সব বড় ম্যাচে যতটুকু রিলাক্স হওয়া যায়। কম চিন্তা করা যায় তত আমার জন্য ভালো।

বিপিএল ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মত ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতাকে চ্যাম্পিয়ান হওয়া পর্যন্ত নিয়ে যেতে সেরা ব্যাটিং করারও সংকল্প তামিমের। ভালো খেলে দলের জয়ে বড় ভূমিকা রাখতে চান তিনি।

দেশি-বিদেশি ক্রিকেটার মিলিয়ে একবারে স্বাভাবিক একটি দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। বিপিএলের রংপুরের বিপক্ষে খেলা দুই ম্যাচেই কুমিল্লা অলআউট হয়েছে একশ রানের নিচে স্কোর করে। আর অন্যদিকে রংপুর ঢাকার কাছে কোয়ালিফাই রাউন্ডে হেরে বিদায় নেয়।

তামিমের সুরে সুর মিলাচ্ছেন কুমিল্লার আরেক ওপেনার ইমরুল কায়েস। ইমরুল কুমিল্লার হয়ে এর আগেও ফাইনাল খেলেছেন। সেবার কুমিল্লা চ্যাম্পিয়ানও হয়েছিল। তবে এবার অধিনায়ক হিসেবে ট্রফি স্পর্ষ করতে চান তিনি।  ইমরুল কায়েস বলেন – শুধু আমি নয়, আমাদের সবাই রোমাঞ্চিত ফাইনাল নিয়ে। প্রত্যেক খেলোয়াড় চায় ফাইনালে খেলতে। চ্যাম্পিয়ন হতে। যদিও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার অনুভূতি আমি একবার পেয়েছি।

ফাইনালে কুমিল্লার প্রতিপক্ষ এই আসরের হাই ফারফর্মেন্স টিম ঢাকা ডাইনামাইটস। কিন্তু কুমিল্লার জন্য একটি প্লাস-পয়েন্ট আছে এই ফাইনালে। গ্রুপ পর্বে যে দুই ঢাকা-কুমিল্লা মুখোমুখি হয়েছে প্রত্যেকবারই জয় পেয়েছে তামিম-ইমরুলরা। তাই আত্মবিশ্বাসের দিক থেকে তারা অনেকটাই এগিয়ে আছে।

ইমরুল এটাকে ইতিবাচক ধরে বলেন – আমরা দুটি ম্যাচে ঢাকার বিপক্ষে জিতেছি। আত্মবিশ্বাসের দিক থেকে ভালো অবস্থানে আছি। একটি দলকে দু’বার যখন হারাবেন তখন প্রতিপক্ষ হিসেবে আমাদের নিয়ে চিন্তা করবে তারা। এটাই আমাদের জন্য ইতিবাচক।

ফাইনালের ফলাফল কি হবে? সেটি নিয়ে ইমরুল কায়েস আরো বলেন – প্রথম থেকে ফাইনাল পর্যন্ত আমরা ভালো খেলেছি। প্রত্যেক ক্রিকেটার মন থেকে চেয়েছে ফাইনাল খেলতে। আসলে ফাইনাল খেলা ভাগ্যের ব্যাপার। আগে থেকে বলা সম্ভব নয়। আমরা চেষ্টা করব নিজেদের সেরাটা খেলার। আর সেটা খেলতে পারলে ইনশাআল্লাহ ফলাফল আসবে।

পাঠকের মতামত