কলমি শাক খেলে যা যা পাচ্ছেন

ছবি : সংগৃহীত।

কলমি শাক আমরা অনেকেই পছন্দ করি না। শাক হিসেবে এটি অনেক সস্তা। সস্তা বলেই এটিকে অনেকে আবার গরীবের খাবার বলেও অভিহিত করে থাকেন।

কিন্তু আপনি জানেন কি? এই শাকে রয়েছে অনেক গুন। যা আমরা অনেকেই জানি না। প্রতি ১০০ গ্রাম কলমি শাকে রয়েছে, পানি – ৮৯ ৭ গ্রাম, আমিষ – ৩ ৯ গ্রাম, লৌহ – ০ ৬ গ্রাম, শ্বেতসার – ৪ ৪ গ্রাম, আঁশ – ১ ৪ গ্রাম, ক্যালসিয়াম – ০ ৭১ মিলিগ্রাম, থায়ামিন – ০ ৯ মিলিগ্রাম, নায়াসিন – ১ ৩ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি – ৪৯ মিলিগ্রাম, ক্যালোরি – ৩০ কিলো ক্যালোরি। বুঝতেই পারছেন এবার।

এছাড়াও কলমি শাক খেলে আপনি আরো যেসব উপকারিতা পাবেন, সেগুলো হলো – এই শাকে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি। যা ভিটামিন রোগ প্রতিরোধ করে। কলমি শাকে ক্যালসিয়াম থেকে বলে, এই শাক হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে। তাই ছোটবেলা থেকেই শিশুদের কলমি শাক খাওয়ানো উচিত।

এই শাক বসন্ত রোগের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে। পর্যাপ্ত পরিমানে লৌহ থাকায় এই শাক রক্ত শূন্যতার রোগীদের জন্য দারুণ উপকারি। জন্মের পর শিশু মায়ের বুকের দুধ না পেলে মাকে কলমি শাক রান্না করে খাওয়ালে শিশু পর্যাপ্ত পরিমানে দুধ পাবে। তাছাড়া নিয়মিত কলমি শাক খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়।

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত