তিতলি নিয়ে শঙ্কা নেই, তবে প্রস্তুতি আছে: ত্রাণমন্ত্রী

তিতলি নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই, তারপরও আমরা প্রস্তুত। প্রস্তুতির অংশ হিসেবে উপকূলীয় জেলাগুলোতে স্থাপন করা হয়েছে কন্ট্রোলরুম, মজুদ রয়েছে পর্যাপ্ত খাদ্য। বললেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া। আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় তিতলি আজ ভোররাতে ভারতের উড়িষ্যা ও অন্ধ্র উপকূল অতিক্রম করে ভারতীয় উপকূলে আঘাত হানার পর দুর্বল হয়ে পড়েছে। এ ঘূর্ণিঝড় থেকে বাংলাদেশের আর ভয়ের কোনো কারণ নেই। তবে তিতলির আঘাত ১৯ জেলায় আক্রান্তের আশঙ্কা ছিল। এসব জেলায় সব ধরনের প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে, বলে উল্লেখ করেন তিনি।

দুর্যোগ মোকাবিলার প্রস্তুতি সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, সব জেলায় কন্ট্রোলরুম খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সব কর্মকর্তার সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এ ছাড়া ৫৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবী প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, ঘূর্ণিঝড় তিতলি বৃহস্পতিবার ভোরে ভারতের উডিষ্যা রাজ্যের গোপালপুরে আঘাত হানলেও তা পুরো শক্তি নিয়ে বাংলাদেশে আসার আশঙ্কা নেই। বরং নিম্নচাপ আকারে আসবে। ফলে উপকূলীয়সহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভারী বৃষ্টিতে হতে পারে। তবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে চার নম্বর সতর্কতা দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা এবং ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ ওডিশার পর তিতলি এখন ধেয়ে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের  দিকে

পাঠকের মতামত