মাহমুদউল্লাহ প্রস্তুত অধিনায়কত্বের দায়িত্ব নিতে

আঙুলের চোটে প্রায় তিন মাস মাঠের বাইরে থাকতে হচ্ছে সাকিব আল হাসানকে। এদিকে সামনে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি হোম সিরিজে বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব দেবেন কে সেটাই এখন ভাবনার বিষয়।

এর আগে জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে সাকিব আল হাসানের চোট পাওয়ায় অধিনায়কত্বের ভার হঠাৎ পড়েছিল মাহমুদউল্লাহর কাঁধে। নিদাহাস ট্রফিতে সাকিব ফিরলে শেষ হয় সাময়িক দায়িত্ব।

চোটে পড়ে এবারও সাকিব নেই। জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসন্ন দুটি হোম সিরিজে বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব দেবেন কে? এটি নিয়ে এখনো  বিসিবি কোনো সিদ্ধান্ত না জানালেও। আবারও মাহমুদউল্লাহর কাঁধে নেতৃত্বের ভার ওঠার সম্ভাবনাই বেশি বলেই ধারণা করছেন কেউ কেউ।

এ নিয়ে গতকাল সন্ধ্যায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ‘ইমেগো’র আয়োজনে ‘স্পোর্টস হাব-বাংলাদেশ ইন অ্যাসোসিয়েশন উইথ দৈনিক প্রথম আলো’ অনুষ্ঠানে মাহমুদউল্লাহ নিজেও জানিয়েছেন, বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্ব করতে প্রস্তুত তিনি, ‘অধিনায়কত্ব সব সময়ই পছন্দ করি। কাজটা খুবই চ্যালেঞ্জিং। খুবই সম্মানের কাজ। এই চ্যালেঞ্জ নিতে উন্মুখ থাকি। যদি এ ধরনের সুযোগ আসে আমি তৈরি।’

তবে অধিনায়কত্ব পাওয়ার আগে মাহমুদউল্লাহর অবশ্য চোটমুক্ত হওয়াটা জরুরি। গত জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে পিঠে চোট পেয়েছিলেন। সেটি নিয়েই খেলেছেন সিপিএল, এশিয়া কাপ। এ নিয়ে তিনি বললেন, ‘চোট থাকবে। এগুলো নিয়ে খেলতে হবে। খেলতে খেলতে হয়তো অবস্থা শোচনীয় হয়েছে। ব্যথাটা পাঁজরের দিকেও এসেছে। এই মুহূর্তে কিছুটা ভালো আছি। কিছুদিনের বিশ্রামে আছি। আশা করি নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই ফিরতে পারব।’

আরো পড়ুনঃ সেন্টমার্টিনের মালিকানা দাবি করলো মিয়ানমার!

পাঠকের মতামত