সেন্টমার্টিনের মালিকানা দাবি করলো মিয়ানমার!

বঙ্গোপসাগরে বাংলাদেশের দ্বীপ সেন্টমার্টিনের কিছু অংশ নিজের ভূমি বলে দাবি করেছে মিয়ানমার। প্রতিবাদে শনিবার ঢাকায় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত লুইন উকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয় বলেও জানা গেছে।

সম্প্রতি মিয়ানমার সরকারের জনসংখ্যা বিষয়ক বিভাগের ওয়েবসাইট তাদের দেশের যে মানচিত্র প্রকাশ করেছে, তাতে সেন্টমার্টিন দ্বীপপুঞ্জকে তাদের ভূখণ্ডের অংশ দেখানো হয়ে‌ছে। ওই মানচিত্রে মিয়ানমারের মূল ভূখণ্ড এবং বঙ্গোসাগরে বাংলাদেশের অন্তর্গত সেইন্ট মার্টিন দ্বীপকে একই রঙে চিহ্নিত করা হয়।  অন্যদিকে বাংলাদেশের ভূভাগ চিহ্নিত করা হয় অন্য রঙে।

এই ঘটনায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম অ্যাফেয়ার্স ইউনিটের প্রধান খুরশেদ আলমের দপ্তরে মিয়ানমার রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়। সেখানে সেন্টমার্টিন দ্বীপ নিয়ে মালিকানার দাবির বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে একটি কূটনৈতিক পত্রও দেওয়া হয়।  ত‌বে এ বিষ‌য়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দেয়‌নি।

উল্লেখ্য, ব্রিটিশ রাজ থেকে ভারত ও পাকিস্তানের স্বাধীনতার পর সাবেক পূর্ব পাকিস্তানের সীমানায় ছিল সেন্টমার্টিনও। পরে পাকিস্তান ভেঙে স্বাধীন হওয়ার পর আট বর্গকিলোমিটারের এই প্রবাল দ্বীপটি বাংলাদেশের অংশ হয়। এর মালিকানা নিয়ে কখনও কোনো প্রশ্ন ছিল না।

আরো পড়ুন ঃ মুক্তিযোদ্ধা কোটার দাবিতে সড়ক, রেল, নৌপথ অবরোধের ডাক

Agami Soft. - Inventory Management System

পাঠকের মতামত