খালেদার চিকিৎসায় পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছে সরকার। আগামী শনিবার এই মেডিকেল বোর্ড খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য কারাগারে যাবে বলে জানা গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মো. মাহাবুবুল ইসলাম।

এই মেডিকেল বোর্ডে যারা  আছেন তারা হলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরী (ইন্টারনাল মেডিসিন), অধ্যাপক হারিসুল হক (কার্ডিওলজি), অধ্যাপক আবু জাফর চৌধুরী (অর্থোপেডিক সার্জারি), সহযোগী অধ্যাপক তারেক রেজা আলী (চক্ষু) ও সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ (ফিজিক্যাল মেডিসিন)।

প্রসঙ্গত, কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গত ৪ সেপ্টেম্বর কারাগারের ভেতর আদালতে তার অসুস্থতার কথা জানিয়ে বিচারকের উদ্দেশ্যে খালেদা বলেন, ‘আমার হাতের অবস্থা ভালো না। ডাক্তার বলছে, পা ঝুলিয়ে রাখলে ফুলে যাবে। রিপোর্ট দেখলে বুঝতেন আমার শরীরের অবস্থা কী।’ এরপর, ৭ সেপ্টেম্বর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল এক সংবাদ সম্মেলনে খালেদার অসুস্থতার বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, ‘আমাদের চেয়ারপার্সন অত্যন্ত অসুস্থ। আমাদের চিকিৎসক ও আইনজীবীরা এ বিষয়ে অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে কথা বলেছেন। এটা আমাদের দলের পক্ষ থেকে বারবার বলা হয়েছে। যেখানে বেগম খালেদা জিয়ার জীবনের প্রশ্ন, বেঁচে থাকার প্রশ্ন, সুস্থা থাকার প্রশ্ন, সেখানে সরকার কোনো গুরুত্ব দিচ্ছে না।’

এরপরে ফখরুলসহ বিএনপি নেতারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে খালেদার পছন্দ অনুযায়ী অ্যাপোলো অথবা ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর অনুরোধ করেন। এই বৈঠকের পর ‘বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড হবে’ বলে সাংবাদিকদের জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

পাঠকের মতামত