‘ড. কামাল মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে একাট্টা হয়ে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করেছে’ | বিডি৩৬০নিউজ

‘ড. কামাল মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে একাট্টা হয়ে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করেছে’

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নিয়ে ড. কামাল হোসেন মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে একাট্টা হয়ে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করেছে বলে মন্তব্য করেছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়মন্ত্রী অ্যাডভোকটে আনসিুল হক।

আজ শুক্রবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজলোর চারগাছ এন আই ভূঁঞা ডিগ্রি কলজে মাঠে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘নিরপরাধ শিশুরা স্কুলে যাবে। এসময় তাদের ওপর বাস তুলে দেওয়া হলো। এতে শিক্ষার্থীদের রাগ হওয়ারই কথা। তারা আন্দোলন করলো নিরাপদ সড়কের জন্য। আমরা তাদের বলেছি, দাবি সঠিক। সড়ক নিরাপদ করতে হবে, করবো। আমরা শিক্ষার্থীদের বলেছি তোমরা ফিরে যাও। তারা ফিরে যাচ্ছিলো। তখন ড. কামাল হোসেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে একাট্টা হয়ে ষড়যন্ত্র করেছে সরকার ফেলে দিতে হবে। একটি মহল মুসলমানবিরোধী মার্কিনিদের সঙ্গে একাট্টা হয়ে সরকার ফেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।’

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, আমাদের প্রধান নির্বাচন কমিশনার আশঙ্কা করছেন আগামী নির্বাচনে হাঙ্গামা হতে পারে। যদিও উনার কথায় চারজন নির্বাচন কমিশনার দ্বিমত পোষণ করেছেন।

এসময় তিনি সিইসিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি আপনার কমিশন ঠিক করে সারাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন দিন। আমাদের বাঙালি ভাইবোনেরা কোনও অনিয়ম ছাড়াই ভোট দেবে। আমার বাঙালি ভাইয়েরা অত্যন্ত সুশৃঙ্খল, আপনি ভয় পাবেন না। আমরা বাঙালিরা কখনও কোনও দিন অনিয়ম করি নাই।

মূলগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ আলমের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কসবা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক এম জে হাক্কানী, রাশেদুল কায়ছার জীবন, রহুল আমীন ভূইয়া বকুল, কাজী আজহারুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মনির হোসেন, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাইনুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত