ইবিতে বঙ্গমাতা বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেসার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল

বঙ্গমাতা বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৮৮তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মাহফিল  এর অায়োজন করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখ  ছাত্রলীগ। অাজ বুধবার বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
 দোয়া মাহফিলের শেষে ইবি  শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী, মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব। আজ তার ৮৮তম জন্মবার্ষিকী। ১৯৩০ সালের ৮ আগস্ট গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে জাতির পিতার হত্যাকারীদের নিষ্ঠুর, বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞের শিকার হন তিনি।
দোয়া মাহফিলে ইবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিন বলেন, তৎকালীন ফরিদপুরের টুঙ্গিপাড়ার অজপাড়াগাঁয়ের সন্তান শেখ মুজিব দীর্ঘ আপসহীন লড়াই-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় ধীরে ধীরে শুধু বাঙালি জাতির পিতাই নন, বিশ্ববরেণ্য রাষ্ট্রনায়কে পরিণত হয়েছিলেন, তার পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তারই সহধর্মিণী, মহীয়সী এই নারী- বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব। বঙ্গবন্ধুর সমগ্র রাজনৈতিক জীবন ছায়া আর অফুরান অনুপ্রেরণার উৎস ছিলেন তিনি। বাঙালি জাতির মুক্তি সনদ ছয় দফা ঘোষণার পর বঙ্গবন্ধু যখন বার বার পাকিস্তানি শাসকদের হাতে বন্দি জীবন-যাপন করছিলেন, তখন দলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা তার কাছে ছুটে আসতেন। তিনি তাদের বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন দিক-নির্দেশনা পৌঁছে দিতেন এবং লড়াই-সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার জন্য অনুপ্রেরণা জোগাতেন।
বঙ্গমাতা এখনকার নারীদের জন্যও অনুকরণীয় আদর্শ হয়ে থাকবেন। তার অবদান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। দোয়া মাহফিল শেষে মসজিদ গেইটে সবার মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।
এ সময়  শাখা ছাত্রলীগের নেতা তৌকির মাহফুজ মাসুদ, ফয়সাল সিদ্দীকী অারাফাত, শিবলু, রিজভী অাহমেদ পাপন, সোহাগ, টনি,  নুর ইলাহী,  সোলাইমান,বাপ্পী, সাগর, হোসাইন মজুমদার, সহশতাধিক কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

পাঠকের মতামত