আইফেল টাওয়ারে খেলা দেখবেন ৯০ হাজার ফরাসি

‘ওয়ার্ল্ড গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ খ্যাত ফুটবল বিশ্বকাপ এখন শেষ ম্যাচে দাঁড়িয়ে। ফাইনাল মঞ্চে বিশ্বসেরা হওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ফ্রান্স ও ক্রোয়েশিয়া। এই ম্যাচ দিয়েই পর্দা নামবে বিশ্বকাপের একুশতম আসরের।

আর এই ম্যাচকে নিয়ে গোটা ফ্রান্স জুড়ে চলছে উত্তেজনা। দেশের স্বপ্ন জয় একসঙ্গে দেখতে ৯০ হাজার ফরাসি সমর্থক হাজির হবেন আইফেল টাওয়ারের সামনে।

এর আগে ১৯৯৮ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছিল ফ্রান্স। ২০০৬ সালে ফাইনালে উঠেও শিরোপা ঘরে তুলতে ব্যর্থ হয় জিনেদিন জিদানের দল। আজ আরো একবার নিজেদের স্বপ্নের কাছে দাঁড়িয়ে ফরাসিরা।
ফাইনাল ম্যাচকে কেন্দ্র করে প্যারিস মেরির পক্ষ থেকে ফ্রান্সের বিভিন্ন শহরে বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন হয়েছে। প্যারিসের আইফেল টাওয়ারের সামনে এমবাপ্পে-গ্রিজম্যানদের সমর্থন দিতে হাজির থাকবেন প্রায় ৯০ হাজার মানুষ। আইফেল টাওয়ারের সামনে চারটি বড় পর্দায় খেলা দেখানো হবে। ফাইনাল ম্যাচটি শুরু হবে ফ্রান্স সময় বিকাল পাঁচটায়।
তাই দুপুর ১ টা থেকে সমর্থকরা প্রবেশ করতে পারবেন। তবে এই আয়োজনে প্রবেশ করা নিয়ে কিছু বিধি-নিষেধও রয়েছে। বড় ব্যাগ নিয়ে সমাগমে প্রবেশ করা যাবে না। এছাড়া বিয়ার বা মদের বোতল ও নিষিদ্ধ যেকোন জিনিস নিয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

লুজনিকির স্টেডিয়ামে আজ ফরাসিদের বিপক্ষে মাঠে নামবে ক্রোয়েশিয়া। অতীতের পাঁচ সাক্ষাতে কখনোই যে ফরাসিদের হারাতে পারেনি তারা। তবে এই ম্যাচটা যখন বিশ্বকাপের ফাইনাল, সেখানে ফেভারিট আর আন্ডারডগ বলে আসলে কিছু থাকে না। প্রতাপশালী ফ্রান্সকে ফেভারিট মেনে ক্রোয়েশিয়াও তৈরি নিজেদের স্বপ্ন জয়ের জন্য।

সবকিছু মিলিয়ে ফরাসি সমর্থকরা দেখবেন তো দ্বিতীয় শিরোপা হাতে চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সকে? নাকি বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের তালিকায় উঠবে ক্রোয়েশিয়া নামক একটি নতুন দেশ? এসব প্রশ্নের উত্তর মিলবে আজ রাতে লুজনিকির মাঠে!

পাঠকের মতামত