অনশন ভাঙলেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা

এমপিওভুক্তির দাবিতে দীর্ঘ একমাস জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খোলা আকাশের নিচে অবস্থানরত শিক্ষকদের পানি পান করিয়ে অনশন ভাঙালেন জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান এবং গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী।

আজ বুধবার (১১ জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রাস্তায় অনশনে থাকা শিক্ষক-কর্মচারীদের মাঝে উপস্থিত হয়ে তাদের অনশন ভাঙান এই দুই শিক্ষাবিদ।

জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, ‘আপনারা দীর্ঘদিন ধরে খোলা আকাশের নিচে না খেয়ে আন্দোলন করে যাচ্ছেন। এটি জাতির জন্য অনেক কষ্টদায়ক ব্যাপার। আপনাদের দাবির যৌক্তিকতা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সংসদে আপনাদের বিষয়টি নিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন। আমরা আশা করছি বিষয়টি দ্রুত সমাধান হবে।’

‘এই সমস্যা সমাধানে শিক্ষা মন্ত্রণালয় একটি উপায় বের করবে, যেন দ্রুত এমপিওভুক্তিকরণ করা সম্ভব হয়। আপনারা শিক্ষার্থীদের কথা ভাবুন, দেশের মানুষের কথা ভাবুন। আপনারা ক্লাসে ফিরে যান’- বলেন ড. আনিসুজ্জামান।

অন্যদিকে গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী শিক্ষকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনাদের দাবি যৌক্তিক। আপনারা শিক্ষার্থীদের কথা ও সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে অনশন ভেঙে পাঠদানে মনোযোগ দিন। দ্রুত আপনাদের দাবি বাস্তবায়ন করা হবে।’ এরপর তিনি একজন নারী শিক্ষককে পানি খাইয়ে অনশন ভাঙেন।

এর আগে সকালে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সঙ্গে ৫ জন শিক্ষক নেতা দেখা করেন। সভায় এমপিওভুক্তির সর্বোচ্চ চেষ্টা করছেন জানিয়ে তাদের আন্দোলন স্থগিতের অনুরোধ করেন শিক্ষামন্ত্রী।

অনশন ভাঙানোর পর বাংলাদেশ নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বিনয় ভূষণ রায় বলেন, ‘আমরা আন্দোলন স্থগিত করেছি। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে খুশির বার্তা দেওয়া হয়েছে, দাবি বাস্তবায়নে আগামী এক থেকে দুই মাস সময় লাগতে পারে। জুলাই থেকে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীকে এমপিও সুবিধা দেওয়া হবে বলে জেনেছি। ফলে আমরা এখন থেকে আন্দোলন স্থগিত করেছি, কাল থেকে পাঠদানে মনোযোগী হবো।’

এর আগে গত এক মাস ধরে এমপিওভুক্তির দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। প্রতিদিনের মতো বুধবার ১৭তম দিনে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খোলা আকাশের নিচে বসে আন্দোলনকারীরা আমরণ অনশন পালন করে আসছিলেন।

পাঠকের মতামত