ইসরাইলের সঙ্গে প্রীতি-ম্যাচ বাতিল করল আর্জেন্টিনা | বিডি৩৬০নিউজ

ইসরাইলের সঙ্গে প্রীতি-ম্যাচ বাতিল করল আর্জেন্টিনা

আগামী ৯ জুন ইসরাইলের সঙ্গে আর্জেন্টিনার একটি প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু হতে যাওয়া প্রীতি-ম্যাচটি বাতিল করল আর্জিন্টিনা।  এ ম্যাচটি ঘিরে ফিলিস্তিনে উত্তেজনা বৃদ্ধি পাওয়ায় ল্যাটিন আমেরিকার ফুটবল দেশটি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আল-জাজিরার সংবাদ।

জেরুজালেমে আগামী শনিবারের নির্ধারিত ম্যাচটি বাতিল করা হয়েছে।  সহিংসতা বৃদ্ধি সেইসাথে দলের অধিনায়ক লিওনেল মেসিরকে হুমকি ও সমালোচনার শিকার হবার আশংকায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে মঙ্গলবার আর্জেন্টিনার ক্রীড়া সংস্থার ওয়েবসাইট মিনুতুনোতে এ তথ্য জানানো হয়।

জেরুজালেমের তেদি স্টেডিয়ামে ইসরাইলের মুখোমুখি হবার জন্য প্রস্তুত ছিল আর্জেন্টিনা। এখানে এক সময় ফিলিস্তিনের একটি গ্রাম ছিল। দখলদার ইসরাইলের সেনাবাহিনী ১৯৪৮ সালে স্টেডিয়ামটি তৈরির সময় ফিলিস্তিনের গ্রামটি ধ্বংস করে দেয়।  সেইসাথে গত ৩০ মার্চ থেকে বিক্ষোভে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইলের হামলাকালীন দেশটির সাথে আর্জেন্টিনার ফুটবল দলের প্রীতি-ম্যাচকে অনেক ফিলিস্তিনি সমর্থক মেনে নিতে পারেনি।

আর্জেন্টাইন সুপার স্টার লিওনেল মেসিকে এই ম্যাচটি না খেলার আহ্বান জানিয়েছেন ফিলিস্তিনের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জিবরিল রজৌব। বিরোধপূর্ণ জেরুজালেমে অনুষ্ঠেয় ম্যাচটিকে রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ইসরাইল ব্যবহার করছে অভিযোগ এনে এই আহ্বান জানান তিনি। সেই সাথে মেসি যদি এই ম্যাচটি খেলে, তবে প্রতিবাদ হিসেবে মেসির ফটো ও জার্সি পোড়ানোরও আহ্বান জানান জিবরিল।

এমন পরিস্থিতিতে আর্জেন্টিনা কর্তৃপক্ষ এ ম্যাচটি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিল। তবে এ সিদ্ধান্তের পর ইসরাইলি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট মরিসিও মাকরির সাথে টেলিফোনে কথা বলবেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু।

পাঠকের মতামত