রাজশাহীতে ক্লিনিকের ছাদ থেকে পড়ে কলেজছাত্রীর মৃত্যু

রাজশাহীতে একটি বেসরকারি ক্লিনিকের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে সাথী খাতুন (১৭) কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার দুপুরে নগরের লক্ষ্মীপুর এলাকার রাজশাহী মডেল হাসপাতাল নামের ওই ক্লিনিকের ছাদ থেকে পড়ে যাওয়ার পর তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় বলে জানান মহানগর পুলিশের রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান হাফিজ।

নিহত সাথী খাতুন ঝিনাইদহ সদরের মৃত মীর আবুল বাসারের মেয়ে। ঝিনাইদাহের আবদুল রউফ কলেজ থেকে সাথী এবার এইচএসসি পরীক্ষা দিয়েছে।

ওসি হাফিজ বলেন, মেয়েটি পাঁচ তলার ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হন। তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাথীর মৃত্যু হয়। নিহতের লাশের ময়নাতদন্ত করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানান ওসি।

নিহতর সাথীর ভাই নাজিম জানান, তার বোন সাথী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ। তার সারা শরীরে ঘা। চলতি মাসের আট তারিখে তাকে রাজশাহী মডেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক মিজানুর রহমান তাকে চিকিৎসা দিচ্ছেলেন।

পাঠকের মতামত