সবার জানাটা খুব জরুরী, দুর্ঘটনা কখনও বলে আসে না

হঠাৎ আপনি আর আপনার পাশের কেউ দুর্ঘটনায় পড়তে পারেন। কয়েকদিন আগেই বাসের চাপায় এক ছাত্র হাত হারিয়েছে, এসব জানা থাকলে হয়তো তাকে হাতটা হারাতে হতোনা!

অনেক সময়ই দেখা যায় রোড এক্সিডেন্ট, মেশিনে বা ধারালো কিছুর আঘাতে আমাদের হাতের আঙুল বা পুরো হাতটাই কেটে পড়ে যায়। পা এর ক্ষেত্রেও হতে পারে।

হসপিটালে নিয়ে আসার পর কাটা জায়গা সেলাই করা সম্ভব হলেও শরীরের হারানো অংশ আর ফিরে পাওয়া যায় না।

অনেকে কাটা আঙুল বা অন্য অংশ সাথে করে নিয়ে আসেন জোড়া লাগিয়ে দেওয়ার জন্য। কিন্তু আমরা পারি না কারন নিয়ম মেনে না নিয়ে আসায় সেটা নষ্ট হয়ে যায়।

আমরা আজ শিখবো কিভাবে এক্সিডেন্ট হলে শরীরের বিচ্ছিন্ন অংশ সাথে করে নিয়ে আসতে হবে জোড়া লাগানোর জন্য।

পদ্ধতিটি কিন্তু খুব সহজ।

প্রথমে পার্শ্ববর্তী কোন ওষুধের দোকান থেকে একটা জোড়া গ্লাভস, একটা নরমাল স্যালাইন এর বোতল আর কিছু গজ ব্যান্ডেজ কিনুন। দুইটা পলিথিন জোগাড় করুন আর কিছু আইস বা বরফ।

প্রথমে গ্লাভস পড়ে নিয়ে নরমাল স্যালাইনের প্লাস্টিকের বোতল কেটে শরীরের বিচ্ছিন্ন অংশটুকু ধুয়ে নিন। তারপর গজ ব্যান্ডেজ সেই নরমাল পানিতে ভিজিয়ে কাটা অংশটা গজ ব্যান্ডেজ দিয়ে জড়িয়ে নিন। তারপর একে পলিথিনের প্যাকেটে ঢুকান। এবার একটা পলিথিনে পানি নিয়ে তার ভিতর আইস দিন। আইস ভর্তি প্যাকেটে এবার আগের পলিথিনটি ঢুকান। শেষ,
এবার পরিবহন করুন।

No automatic alt text available.

মনে রাখবেন ডাইরেক্ট আইসের ভিতর কাটা অংশ দিবেন না। আমাদের প্রয়োজন ঠান্ডা পানির সংস্পর্শ, আইসের নয়।

যদি এতকিছুর ব্যবস্থা না করতে পারেন অন্তত কাটা অংশটুকু ভালো পানি বা বাজারের মিনারেল ওয়াটার দিয়ে ধুয়ে তা একটা ভেজা কাপড় এর টুকরা দিয়ে জড়িয়ে নিন। এবার ঠান্ডা পানির প্যাকেট দিয়ে একে জড়িয়ে নিয়ে চলে আসুন।

এইভাবে একটা কাটা আঙুল ১২ ঘণ্টা আর কাটা হাত ৬ ঘণ্টা পর্যন্ত ভালো থাকতে পারে। একে বলে Cold ischaemic time. আর দেশের যে কোন ভালো সেন্টারে এই সময়ের ভিতর যাওয়া যায়।

তবে নিয়ে গেলেই যে ডাক্তার আপনার কাটা অংশটুকু জোড়া লাগাতে পারবেন তা কিন্তু নয়। প্রথমে সেই সেন্টারে অর্থোপেডিক মাইক্রোসার্জারী বা প্লাস্টিক সার্জারি এর ব্যবস্থা থাকতে হবে। এখন দেশের বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ বা স্পেশালাইজড হসপিটালে এইসব ব্যবস্থা আছে।

শুধু ব্যবস্থা থাকলেই হবে না। আপনার কাটা অংশটুকু জোড়া লাগানোর উপযুক্ত কিনা সেটা বড় ফ্যাক্টর। বেশিরভাগ সময়ই কাটা অংশটা এমনভাবে থেঁতলে যায় বা কেটে যায় যে সেটা পুনরায় ব্যবহারের অনুপযুক্ত হয়ে পড়ে। তাই ডাক্তারের সিদ্ধান্তই এখানে চূড়ান্ত।

সঠিক পদ্ধতি ব্যবহার করে পরিবহন করুন। অন্যদের জানান, শেয়ার করুন। নিজে আরও বিস্তারিত জানতে চাইলে Replantation লিখে গুগলে সার্চ দিন।
অজ্ঞতা যেন আমাদের নিজের, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধুবান্ধব, প্রতিবেশী থেকে শুরু করে রাস্তার অপরিচিত লোকটির জীবনেও বাঁধা হয়ে না দাঁড়ায়।

☞ পোস্টটি বেশি বেশি শেয়ার করে সবাইকে জানতে সাহায্য করুন। আপনার একটি শেয়ারে হয়ত কেও ফিরে পেতে পারে শরীরের হারানো অংশ ।

সবকিছু জোড়া লাগুক, কাটা আঙুল থেকে ভাঙ্গা মনও 😊

কৃতজ্ঞতায়: সুমন পাল (ShSMC)

 

পাঠকের মতামত