রাতে গোসল করার কথা শুনলে অনেকেই ভ্রূ কপালে তুলে ফেলেন

রাতে গোসল করার কথা শুনলে অনেকেই ভ্রূ কপালে তুলে ফেলেন। আর তার কারণ হলো অনেকেরই ধারণা রাতে গোসল করলেই ঠাণ্ডা-জ্বরে আক্রান্ত হতে হবে। কিন্তু সকালে ওঠার অভ্যাস নেই অনেকেরই। তাই সকালে গোসল করাও হয়ে ওঠে না। তাই রাত জাগা পাখিদের রাতেই গোসল করা হয়।

সামির জাবেরের মতে, বসন্তে পোলেনের মতো এলার্জেন থাকে বাতাসে। এগুলো শরীরে লেগে যায়, যা ত্বকের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়াও সারাদিন বাইরে কাজ করার পরে শরীর ঘেমে থাকে এবং ত্বকে ধুলাবালি লেগে থাকে। তাই ঘুমাতে যাওয়ার আগে অবশ্যই গোসল করে নেয়া উচিত।

রাতের গোসল স্বাস্থ্যকর নাকি অস্বাস্থ্যকর এই নিয়ে দ্বিধা থাকলেও নিউইয়র্কের ডার্মাটোলজিস্ট ডক্টর সামির জাবের জানিয়েছেন রাতের গোসলই স্বাস্থ্যকর। সকালে গোসল করার অভ্যাস থাকলেও রাতে অন্তত আরেকবার শরীর এবং মুখ ধুয়ে নেয়া জরুরী বলে জানিয়েছেন তিনি। বিশেষ করে বসন্ত এবং গ্রীষ্মে এই অভ্যাস অবশ্যই রপ্ত করা উচিত বলে মনে করেন তিনি। কারণ, এতে ত্বক ভালো থাকে।

হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির আরেকটি গবেষণাতেও বলা হয়েছে যে রাতে গোসল স্বাস্থ্যকর। কারণ রাতে গোসল করলে ঘুম ভালো হয়। যাদের ঘুম কম হয় কিংবা ইনসমনিয়ার সমস্যা আছে তাদেরকে বিছানায় যাওয়ার আগে হালকা গরম পানিতে গোসল করার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা।

পাঠকের মতামত