মালয়েশিয়াকে ১০ গোল দিল বাংলাদেশের মেয়েরা

পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দল। হংকংয়ে চার জাতি জকি ক্লাব নারী ফুটবলে উড়ন্ত সূচনা করেছেন বাংলাদেশের মেয়েরা। আজ নিজেদের প্রথম ম্যাচে মালয়েশিয়াকে ১০-১ গোলে হারিয়েছেন তারা।

বাংলাদেশের মেয়েদের মধ্যে সাতজন মালেয়েশিয়ার জালে বল পাঠিয়েছেন। তাদের মধ্যে তহুরা খাতুন, শামসুন্নাহার ও আনাই মগিনি করেছেন দুটি করে গোল। একটি করে গোল করেছেন আরো চার জন। মালেয়েশিয়ার জালে ১০ গোলে দেওয়ার বিপরীতে এক গোল খেয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

ম্যাচের শুরু থেকেই মালয়েশিয়াকে চেপে ধরে বাংলাদেশ। ১৩ মিনিটে গোলের খাতা খোলেন সাজেদা। এরপর ফরোয়ার্ড তহুরার ঝলক। ১৮ ও ২০ মিনিটে জোড়া গোল করেন কলসিন্দুরের এ মেয়ে। মিনিট দুয়েক পর ব্যবধান ৪-০ করেন আনুচিং মগিনি।

গোল এক হালি হওয়ার পরও থামেনি লাল-সবুজ জার্সিধারীদের দাপট। ২৪ মিনিটে ব্যবধান ৫-০ করেন আনাই। এদিন গোলের নেশায় মত্ত ছিলেন মেয়েরা। ৩৮ মিনিটে আরেক গোল করেন শামসুন্নাহার (জুনিয়র)। ৬-০ ব্যবধান নিয়ে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ। ফিরে আরও এক হালি দেয় সফরকারীরা। ৫৩ মিনিটে নিজের জোড়া গোলে ব্যবধান ৮-১ করেন শামসুন্নাহার। ৬৬ মিনিটে জোড়া গোল পূর্ণ করে ব্যবধান ৯-১ করেন আনাই। ৭০তম মিনিটে শেষ গোলটি করেন নিলুফা ইয়াসমিন। এ অর্ধে চার গোল দিলেও একটি হজম করে বাংলাদেশ। ৫৩ মিনিটে একমাত্র গোলটি হজম করে তহুরারা।

এ খেলায় হারিয়েছে কাগজে-কলমে তাদের থেকে ভালো দলকে। কারণ ফিফা র‌্যাংকিংয়ে মালয়েশিয়ার অবস্থান ৮০। যেখানে বাংলাদেশ ১০২ নম্বরে। গত বছরের  ডিসেম্বরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব ১৫ সাফ ফুটবলে ভারতকে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়া এই মেয়েরা আরো একবার প্রমাণ করলো র‌্যাংকিং কিংবা দলের নামে তারা ভয় পায় না।

আগামীকাল দ্বিতীয় ম্যাচে ইরানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের অন্য দলটি স্বাগতিক হংকং। তিন ম্যাচ শেষে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দলটিই হবে চ্যাম্পিয়ন।

পাঠকের মতামত