ডেটক্স ড্রিংক’র প্রভাব | বিডি৩৬০নিউজ

ডেটক্স ড্রিংক’র প্রভাব

শরীরের দুষিত চর্বি সরিয়ে ফিট-আর স্লিম ফিগারের জন্য আমরা কত কিছুই না করি। বিশেষ করে যেদিন একটু বেশি খাওয়া হয়ে হলো, সেদিন তো ঘরে ঢুকেই আমরা ব্যায়াম শুরু করি।

অনেকে জিমে চলে যান, অার অনেকেই আছেন যারা শাক-সবজি-ধনেপাতা-লেবু দিয়ে একটি জুস বানিয়ে খেতে থাকেন, টানা সাতদিন। আর ভাবতে থাকেন খুব ভালো একটা কাজ হয়েছে সাতদিনে ১০ কেজি(!) ওজন কমানোর কাজ শেষ।

এই ‘ডেটক্স ড্রিংক’ পদ্ধতিতে সাময়িক ওজন হয়ত কিছুটা কমে কিন্তু শরীরের ওপর এর প্রভাব কী হতে পারে?

ক্লান্তি

সলিড ফুড না খেয়ে শুধু তরল জুস পানের পরিমাণ বাড়িয়ে দিলে শরীর ক্লান্ত হয়ে যায়। কারণ আমাদের জন্য অপরিহার্য কার্বোহাইড্রেট, সোডিয়াম, প্রোটিন এবং চর্বি কোনো কিছুই থাকে না জুসের মধ্যে। ফলে মাথাঘোরা বা ক্লান্ত লাগতে পারে।

ওজন হারাতে পারেন, তবে

যেহেতু শুধুমাত্র তরল শরীরের ক্যালোরির চাহিদা পূরণ করে করেনা, তাই ওজন কমতে পারে। তবে এভাবে খুব অল্প সময়ে ওজন কমানো কোনো স্বাস্থ্যকর পদ্ধতি নয়।

ত্বকের ক্ষতি

প্রয়োজনীয় ভিটামিন, খনিজ এবং ভালো চর্বির অভাবে ত্বক শুষ্ক, রুক্ষ এবং নিস্তেজ হয়ে ‍যায়।

পেটে সমস্যা
যখন জুস করা হয়, ফল এবং সবজি তাদের সবকটি ভাল ফাইবার(আঁশ) হারাবে। ফাইবারের অভাবে হজমে সমস্যা, পেট ব্যথা, অম্লতা( এসিডিটি) হতে পারে।

যারা ওজন কমানোর কথা ভাবছেন, তাদের জন্য বিশেষজ্ঞের পরামর্শ হচ্ছে, ধীরে ধীরে সঠিক ডায়েট ও ব্যায়ামের মাধ্যমে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে যেতে হবে।

পাঠকের মতামত