স্বাস্থ্য রক্ষায় তিসির পানি | বিডি৩৬০নিউজ

স্বাস্থ্য রক্ষায় তিসির পানি

পরিপূর্ণ প্রাণবন্ততার পাওয়ার জন্য প্রত্যেকদিন সকালে এক গ্লাস তিসির পানি খাওয়া অত্যন্ত জরুরি। এছাড়া শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৃদ্ধি করে ওজন কমাতে সাহায্য করে। আমাদের স্বাস্থ্যের উন্নতির জন্য সবচেয়ে ভালো খাবার হচ্ছে তিসি বীজের পানি। প্রাচীনকাল থেকেই মানবজাতি এই বীজগুলো খেয়ে এসেছে যা শরীরে বেশ উপকার হয়েছে। এটি দামেও খুব সস্তা।

তবে তিসি সম্পর্কে অনেকেই জানেন না বা চিনেন না। যারা তিসি সম্পর্কে অপরিচিত তাদের পরিচিত হওয়া প্রয়োজন এবং দৈনন্দিন সকালের রুটিনে তিসির পানি খাওয়ার অভ্যাস রাখুন। তাতে স্বাস্থ্যের অনেকটা উপকার হবে।

ত্বকের জন্য-

তিসি বীজে রয়েছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। সব উৎসগুলোর মধ্যে থেকে এটি অন্যতম উৎস। এই আশ্চর্যজনক অ্যাসিড আপনার ত্বকের স্বাস্থ্য উন্নত করে দেয়। তিসিতে ভিটামিন ‘বি’ রয়েছে যা শুষ্ক ত্বক কমিয়ে দেয় এবং ফেটে যাওয়া চামড়া বন্ধ করে দেয়।

পেটের স্বাস্থ্যের উপকারিতা-

তিসি বীজে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড উপস্থিত থাকায় আমাদের পাচনতন্ত্রের যে কোন সমস্যা দূর হয়ে যায়। এছাড়া পেট ব্যাথা কমাতে সাহায্য করে এবং হজমশক্তি বৃদ্ধি করে। তিসি বীজে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

মস্তিষ্কের উন্নতি-

তিসির বীজে উচ্চ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে যা মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়। কেননা অক্সিজেন শোষণকারী বিষাক্ত পদার্থকে দূর করে দেয়। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলো আমাদের ব্যকটেরিয়া ও ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করতে সাহায্য করে যাতে আমরা প্রতিদিন সুস্থ থাকতে পারি।

ওজন কমাতে সাহায্য করে-  

ওজন কমাতে তিসির পানি খুবই উপকারী। তিসির পানিতে শরীরে অতিরিক্ত চর্বি নিষ্কাশন করার জন্য ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। এর উচ্চ ফাইবার রয়েছে যা প্রতিটি খাবার খাওয়ার পর শরীরে ক্যালরি পরিমাণ কমিয়ে দেয়। এতে ওজনও আর বাড়তে পারে না।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়-

গবেষণায় দেখা গেছে, প্রত্যেকদিন তিসির পানি পান করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে যাবে। এছাড়া স্তর ক্যান্সার, কোলন, প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে। এটি অঙ্গ হরমোনের সামঞ্জস্য বজায় রাখতে সাহায্য করে এতে ক্যান্সারের উন্নতি ঘটতে পারে না।

যেভাবে তিসি পানি খাবেন-

একটি পাত্রে দুই টেবিল চামচ তিসি ও দুই কাপ গরম পানি মিশেয়ে রাখুন আগের রাতে এবং পরদিন সকালে সেটি পান করুন।

সুত্র: একুশ টিভি

পাঠকের মতামত