বড় ধরনের বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা ছিল ‘জঙ্গিদের’

‘জঙ্গি আস্তানায়’ ৩ জঙ্গির মরদেহ

 

রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ার তেজকুনি পাড়ার রুবি ভিলার ‘জঙ্গিদের’ একজনের গায়ে সুইসাইড ভেস্ট ছিল। একজনের ডেডবডির নিচে একটি আইইডি রয়েছে। রান্নাঘরে গ্যাসের চুলার ওপর আইইডি রেখে আগুন জ্বালিয়ে বড় ধরনের বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা করেছিল বলে মনে হয়েছে। জানালেন র‍্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।

শুক্রবার সকাল ১০টার পরে তেজকুনি পাড়ার ওই বাসার সামনে সাংবাদিকদের ঘটনার বর্ণনা দেন র‍্যাবের মহাপরিচালক।

বেনজীর আহমেদ বলনে, রুবি ভিলার ‘জঙ্গি আস্তানায়’ ৩ জঙ্গির মরদেহ পাওয়া গেছে। চলতি মাসের ৪ তারিখে জাহিদ নামের একজন বাড়িটি ভাড়া নেন। নিহত তিন যুবকের একজনের নাম জাহিদ অথবা সজীব হতে পারে। ওই যুবকের দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। একটিতে তার নাম জাহিদ ও আরেকটিতে সজীব বলে উল্লেখ রয়েছে। নিহতদের বয়স বয়স ২৫ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।

তিনি বলেন, অভিযান চলাকালে ওই বাসায় ‘জঙ্গিরা’ বিস্ফোরণ ঘটানোর চেষ্টা করে। বাসার ভেতরে পাওয়ার জেল, সুইসাইড ভেস্ট ও বিভিন্ন বিস্ফোরক দ্রব্য পাওয়া গেছে। অবিস্ফোরিত আইডিও আছে।

পরে মুফতি মাহমুদ খান সাংবাদিকদের জানান, পাঁচ তলার ওই ফ্ল্যাটে কক্ষ মোট তিনটি, সেখানে থাকতেন মোট সাতজন। ফ্ল্যাটে ঢোকার পর সোজা গেলে যে কক্ষটি, সেখানেই তিনজনের লাশ পাওয়া গেছে।

তিনি জানান, ভবনের নয়টি ফ্ল্যাট থেকে ৬১ জনকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে দোতলায় বাড়িওয়ালার বাসায় রাখা হয়েছে। তাদের সঙ্গে কথা বলে জঙ্গিদের সম্পর্কে তথ্য পাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

বাড়িটি পুরাতন এমপি হোস্টেল সংলগ্ন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের খুব সন্নিকটে।

সুত্র: RTV অনলাইন

পাঠকের মতামত